মেসেঞ্জারে মেসেজ যায় না কেন - মেসেঞ্জারে কল যায় না কেন

প্রিয় বন্ধুরা আপনারা নিশ্চয়ই মেসেঞ্জারে মেসেজ যায় না কেন এ সম্পর্কে জানতে গুগুলে খোঁজাখুজি করেছেন। তবে কোথাও সঠিক তথ্য খুঁজে পাচ্ছেন না। তাহলে চিন্তার কোন কারণ নেই আজকের এই পোস্টটিতে আমরা আপনাদের জন্য মেসেঞ্জারে মেসেজ যায় না কেন ও মেসেঞ্জারে কল যায় না কেন বিস্তারিত তুলে ধরা চেষ্টা করব। যার ফলে আপনি মেসেঞ্জারে সমস্যা সমাধান করতে পারবেন। 
মেসেঞ্জারে মেসেজ যায় না কেন
পোস্টসূচিপত্রঃআজ এই পোস্টে মেসেঞ্জারে কেন মেসেজ যায় না সেই সম্পর্কে কিছু তথ্য তুলে ধরব তাহলে মেসেঞ্জারে কেন মেসেজ যায় না সেটি জানতে হলে পুরো পোস্টটি মনোযোগ দিয়ে পড়ুন।

ভূমিকা ।মেসেঞ্জারে মেসেজ যায় না কেন

মেসেঞ্জার হলো ফেসবুক সোশ্যাল নেটওয়ার্কের একটি মেসেজিং অ্যাপ্লিকেশন। এটি ফেসবুক ব্যবহারকারীদের মধ্যে টেক্সট, মাল্টিমিডিয়া ফাইল, ছবি, ভিডিও, অডিও, স্টিকার, ইমোজি এবং আরও অনেক জিনিস প্রেরণ ও আদান-প্রদান করার জন্য ব্যবহার হয়। আপনি ফেসবুক অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার না করে মেসেঞ্জার অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করে অতি সহজেই যে কোন ফেসবুক ব্যবহারকারী সাথে চ্যাটিং করতে পারেন অথবা কথা বলতে পারেন।

এটি একটি জনপ্রিয় এবং সুবিধাজনক মেসেজিং সেবা হিসেবে পরিচিত এবং ব্যবহারকারীদের মধ্যে খুব জনপ্রিয়। মেসেঞ্জার ব্যবহার করতে আপনি এটি ডাউনলোড এবং ইনস্টল করতে পারেন আপনার স্মার্টফোন অথবা কম্পিউটারের জন্য এবং এর জন্য একটি ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থাকতে হবে।

মেসেঞ্জারে মেসেজ যায় না কেন

আপনি মেসেঞ্জারে কারো সাথে যোগাযোগ করার করতে পাচ্ছেন না।মেসেঞ্জারে মেসেজ যাচ্ছে না এর কারণ বিভিন্ন রকম হতে পারে। কিছু কিছু সময় এই সমস্যা হতে পারে এমন কিছু কারণ নিম্নে উল্লেখ করা হয়েছে।

ইন্টারনেট কানেকশনঃ আপনার মোবাইল ফোনে অথবা ডিভাইসে ইন্টারনেট কানেকশন ঠিক আছে কিনা অথবা ইন্টারনেটের গতি ঠিক আছে কিনা তা চেক করুন।আপনি যদি ওয়াইফাই ব্যবহার করেন তাহলে ওয়াইফাই কানেকশনটির গতি বা ইস্পিড টেস্ট করুন এবং যদি ওয়াইফাই কানেকশন এর নেটওয়ার্ক স্পিড কম পান তাহলে ওয়াইফাই কানেকশন ঠিক করে ব্যবহার করুন। আর যদি মোবাইল ডাটা ব্যবহার করেন তাহলে আপনার মোবাইল কানেকশনটির স্পিড চেক করুন। অনেক সময় এই ইন্টারনেট কানেকশন জনিত সমস্যার কারণে মেসেজ যায় না।

মেসেঞ্জার আপডেট করুনঃ আপনার মেসেঞ্জার অ্যাপ্লিকেশনটি আপডেট ভার্সন ইনস্টল আছে কিনা তা চেক করুন। যদি মেসেঞ্জার পুরাতন ভার্সন ইন্সটল থাকে আপনার ডিভাইসে তাহলে সেটি এখনই গুগল প্লে স্টোর থেকে আপডেট করে নিন। এই আপডেট ভার্সন না থাকার কারণে অনেক সময় মেসেঞ্জারে মেসেজ যায় না।

ডিভাইস রিস্টার্ট করুনঃ অনেক সময় আমরা ডিভাইস স্লো হয়ে যেতে পারে অথবা হ্যাং করতে পারে এ সময় অনেক অ্যাপ্লিকেশন ভালো মতো কাজ করে না তাই মোবাইল ফোনটি অথবা ডিভাইসটি রিস্টার্ট করুন।

মেসেঞ্জার অ্যাপ রিফ্রেশ করুনঃ অনেক সময় মেসেঞ্জারে অফিশিয়ালি ভাবে ঠিকমতো কাজ করে না এর জন্য আপনি অ্যাপ্লিকেশনটি রিফ্রেস করতে পারেন অথবা অ্যাপ্লিকেশনটি মোবাইল ফোনে সেটিং এ গিয়ে ক্লিয়ার ডাটা করতে পারেন। এতে করে অ্যাপ্লিকেশনটি ডিফল্ট নতুনভাবে ওপেন হবে।

ব্লক করা হয়েছে কিনা পরীক্ষা করুনঃ অনেক সময়ই আপনি যার সাথে ম্যাসেজিং করতে চান সে যদি আপনাকে ব্লক করে দেয় তাহলে আপনি তাকে মেসেজ করতে পারবেন না অর্থাৎ আপনার মেসেজ যাবে না। অথবা আপনি ওই ব্যক্তিটিকে ব্লক করে দেন তাহলে সেই ব্যক্তিটি আপনাকে মেসেজ করতে পারবে না এর সাথে আপনিও তাকে মেসেজ করতে পারবেন না হলে মেসেঞ্জারে আপনি মেসেজ করতে পারেন না।

ফেসবুকে একটিভ না থাকলেও একটিভ দেখায় কেন

ফেসবুকে অ্যাক্টিভ না থাকা সত্ত্বেও অনেক সময় আমাদেরকে একটিভ দেখায় এর অন্যতম কারণ হলো ফেসবুকের "একটিভ স্ট্যাটাস" ফিউচার অন থাকা। এই ফিচারটির মাধ্যমে ফেসবুক ব্যবহারকারীরা তাদের প্রিয়জন অ্যাক্টিভ অথবা অনলাইনে আছে কিনা তা দেখতে পাই। এই ফিচারটি আপনার ফেসবুক প্রোফাইলে শো করে এবং আপনি যদি এই ফিচারটি বন্ধ করতে চান তাহলে সেটি আপনি ফেসবুক অ্যাপ্লিকেশনে সেটিংসে গিয়ে বন্ধ করতে পারবেন। এর ফলে আপনাকে আর অ্যাক্টিভ অথবা অনলাইনে দেখাবেনা।
এই ফেসবুকের ফিচারটি অটোমেটিক কাজ করে যদি না আপনি এটি বন্ধ না করে থাকেন। আপনি যখন ফেসবুক ব্যবহার করবেন তখন এটি অটোমেটিক ভাবে কাজ করে এবং আপনাকে অ্যাক্টিভ এবং অনলাইন দেখায়। যার ফলে আপনার প্রিয় মানুষজন বুঝতে পারে আপনি এখন ফেসবুক ব্যবহার করেছেন অথবা ফেসবুকে ম্যাসেজিং এবং অনলাইনে আছেন। এই অপশনটি আপনি ম্যানুয়ালি ফেসবুকে সেটিংস থেকে বন্ধ করতে পারবেন।

ফেসবুকে বা মেসেঞ্জার অ্যাক্টিভ থাকলেও অ্যাক্টিভ দেখায় না কেন

ফেসবুকে অনেক সময় আমরা ঢুকে থাকি অথবা ব্যবহার করি কিন্তু আমাদেরকে অনেক সময় ফেসবুকে অ্যাক্টিভ দেখায় না এর অন্যতম কারণ হলো আপনার ফেসবুক একাউন্টে অ্যাক্টিভ স্ট্যাটাস অপশনটি বন্ধ করা। এই ফিচার অর্থাৎ অপশনটি যদি বন্ধ করা থাকে তাহলে আপনাকে অনলাইনে অ্যাক্টিভ অথবা ফেসবুকে অ্যাক্টিভ দেখাবে না। তাই আপনি যদি আপনার ফেসবুকে অ্যাক্টিভ দেখাতে চান তাহলে আপনাকে অ্যাক্টিভ স্ট্যাটাস অপশনটি চালু করতে হবে অর্থাৎ অন করতে হবে।
প্রথমে আপনাকে মেসেঞ্জারে সেটিংসে যেতে হবে। তার আগে অবশ্যই আপনার মোবাইল ফোনে মেসেঞ্জারে অ্যাপ্লিকেশনটি ইনস্টল থাকতে হবে। এরপর আপনি মেসেঞ্জারে অ্যাপ্লিকেশনে আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্টটি লগইন করুন এবং মেসেঞ্জারে সেটিংস আইকনে ক্লিক করুন নিম্নের ছবি অনুযায়ী।
এরপর উক্ত দেখানো সেটিংস আইকনে ক্লিক করার পর নিচের দিকে scroll করবেন যেখানে লেখা আছে একটিভ স্ট্যাটাস(Active Status)। উক্ত অপশনে ক্লিক করুন।
এরপর আপনি অপশনটিতে ক্লিক করার পর একটিভ স্ট্যাটাস অফ অথবা অন করার অপশন থাকবে যেখানে আপনি অপশনটি অন করতে পারবেন অথবা অফ করতে পারবেন। নিম্নের ছবি দেখলে আরো স্পষ্টভাবে বুঝতে পারবেন।
এখন দেখতে পাচ্ছেন অপশনটি চালু করা হয়েছে এর মানে হলো আপনাকে এখন ফেসবুকে একটিভ অথবা মেসেঞ্জারে একটিভ দেখাচ্ছে অর্থাৎ আপনি অনলাইনে আছেন। আপনি যদি এখন উক্ত একটিভ স্ট্যাটাস অফ করতে চান তাহলে আপনাকে ওই অপশনটিতে ক্লিক করে অফ করতে হবে।
ছবিতে দেখতে পাচ্ছেন অপশনটি সাদা হয়ে আছে অর্থাৎ আমি অপশনটি ক্লিক করে অ্যাক্টিভ স্ট্যাটাস অফ করে রেখেছি। তাহলে বুঝতে পারছেন কিভাবে আপনি ফেসবুক অথবা মেসেঞ্জারে একটিভ স্ট্যাটাস অফ করে রাখবেন অথবা অন করবেন।

মেসেঞ্জারে সিন না করে মেসেজ পড়ার উপায়

প্রিয় বন্ধুরা আপনারা কি মেসেঞ্জারে সিন না করে মেসেজ করতে চান তাহলে এর কিছু উপায় রয়েছে যা আমার এখন আলোচনা করব। আপনি যদি মেসেঞ্জারে মেসেজ সিন না করে মেসেজটি পড়তে চান তাহলে আপনাকে প্রথমেই মেসেঞ্জার অ্যাপ্লিকেশন থাকতে হবে এবং আইডিটি লগইন করা থাকা লাগবে।

এরপর আপনি যার মেসেজ সিন না করে মেসেজটি পড়তে চান সে আইডিটিতে আপনাকে ক্লিক করে কিছুক্ষণ ধরে রাখতে হবে। এরপর আপনার সামনে নিম্নে উল্লেখিত ছবির মত বিভিন্ন ধরনের অপশন শো করবে। এর মধ্যে থেকে আপনাকে রেস্ট্রিক(restrict) অপশনটিতে ক্লিক করতে হবে।
উক্ত অপশনটিতে ক্লিক করার পর আপনাকে মেসেঞ্জারে সেটিংস আইকনে পুনরায় আগের মত ক্লিক করতে হবে। ক্লিক করার পর নিচে অনেকগুলো অপশন গুলো শো করবে এর মধ্যে থেকে প্রাইভেসি অপশনটিতে ক্লিক করবেন।
এরপর অপশনটিতে ক্লিক করার পর বিভিন্ন ধরনের আরো অপশন আপনার সামনে শো করবে এর মধ্যে থেকে আপনাকে Restrict accounts অপশনটি খুজে বের করে তার ওপর ক্লিক করতে হবে।
উক্ত অপশনটিতে ক্লিক করার পর আপনি যে একাউন্টটি সিন না করে মেসেজ দেখতে চান সেই অ্যাকাউন্টটি ওইখানে পেয়ে যাবেন এবং তার উপর ক্লিক করে আপনি মেসেজ দেখতে পারবেন এবং সামনের জন বুঝতে পারবে না যে আপনি তার মেসেজ অলরেডি দেখে ফেলেছেন।
ছবি দেখতে পাচ্ছেন মেসেজ সিন না করে মেসেজ দেখতে পাচ্ছি। এখানে বাম পাশে আইডিটি মেসেজ করেছে কিন্তু সিন দেখাচ্ছেনা। কিন্তু আপনি অলরেডি মেসেজ দেখে ফেলেছেন। এখন আপনি যদি মেসেজ সিন দেখাতে চান তাহলে আপনাকে অবশ্যই নিচে থাকা Unrestict অপশনটিতে ক্লিক করে মেসেজ দেখতে হবে।

মেসেঞ্জার ওপেন হচ্ছে না কেন

মেসেঞ্জার ওপেন না হওয়ার কারণ হচ্ছে মেসেঞ্জার অ্যাপ্লিকেশনটি আপডেট না করা অর্থাৎ পুরাতন ভার্সন ব্যবহার করা। এছাড়াও আরও বিভিন্ন ধরনের কারণ রয়েছে চলুন তা আমরা জেনে নেই।
  • মেসেঞ্জার অ্যাপ্লিকেশন আপডেট না করা।
  • মেসেঞ্জার এপ্লিকেশনটিতে ফেসবুক আইডি লগইন না থাকা।
  • মোবাইল ফোনের ব্যাটারি অপটিমাইজেশন অন থাকা।
  • অনেক সময় মোবাইলের ব্যাটারি চার্জ না থাকার কারণে মেসেঞ্জার ওপেন হয় না।
  • এছাড়া মোবাইল ফোন হ্যাং হয়ে যাওয়া।
  • মোবাইল ফোনের স্টোরেজ এ জায়গা কম থাকা।
  • মোবাইল ফোনের রেম খালি না থাকা।
  • আপনার নেটওয়ার্ক কানেকশন সঠিক না থাকার কারণে হয়।

মেসেঞ্জার চালু হচ্ছে না কেন

আপনার মেসেঞ্জার চালু হচ্ছে না তাহলে চিন্তার কোন কারণ নেই। সামান্য একটু সমস্যার কারণে আপনার মেসেঞ্জারটি চালু নাও হতে পারে। চালু না হওয়ার কারণ অনেক সময় আমরা নিজেই করে থাকি। আপনি যদি সর্বপ্রথম আপনার মোবাইলে মেসেঞ্জারে ইনস্টল করে থাকেন তাহলে আপনাকে মেসেঞ্জারে প্রবেশ করার জন্য কিছু পারমিশন দিতে হয় ,আপনি যদি উক্ত পারমিশন গুলো না দিয়ে থাকেন তখন মেসেঞ্জার চালু হতে চায় না। 

আবার অনেক সময় মেসেঞ্জার দীর্ঘসময় ব্যবহার করার ফলে মোবাইল ফোনে স্টোরেজে মেসেঞ্জার এর ক্যাশ ফাইল জমা হয় যার কারণে চালু হয় না। আপনাকে উক্ত ক্যাশ ফাইলগুলো ডিলিট করতে হবে। আবার মেসেঞ্জারে অফিশিয়ালি ভাবে অনেক সময় চালু হয় না, যা আপনাকে মেসেঞ্জার কোম্পানি জানিয়ে দেবে। এছাড়া মোবাইল ফোনে সঠিক কানেকশন না থাকলে চালু হয় না। 

মোবাইল ফোন ধীরগতি সম্পন্ন হলে এটি হয়ে থাকে। মেসেঞ্জার চালু করার জন্য আপনি মেসেঞ্জার অ্যাপ্লিকেশনটি সেটিংস অপশন থেকে ক্লিয়ার ডাটা করবেন। আবার অনেক সময় থার্ড পার্টি ওয়েবসাইট থেকে মেসেজের অ্যাপ্লিকেশন ইন্সটল করলে তা ওপেন অথবা চালু হতে চায় না। এর জন্য সব সময় গুগল প্লে স্টোর থেকে অ্যাপ্লিকেশনটি ইন্সটল করুন।

মেসেঞ্জারে কল যায় না কেন

মেসেঞ্জারে কল বা ভিডিও কলে সমস্যা হতে পারে এবং এটির হওয়ার কিছু কারণ রয়েছে। একটি ভালো ইন্টারনেট সংযোগ মেসেঞ্জারে ভিডিও কল অথবা অডিও কল করতে প্রয়োজন হয়। তাই আপনি আপনার ব্যবহৃত ওয়াইফাই অথবা মোবাইল ডাটা এর ইন্টারনেট কানেকশন ঠিক আছে কিনা অর্থাৎ ইন্টারনেটের গতি সঠিক আছে কিনা তা চেক করুন।

আপনার মেসেঞ্জার অ্যাপটি আপডেট ভার্সন ইনস্টল করা আছে কিনা তা অবশ্যই চেক করে দেখবেন। অনেক সময় এই আপডেট না থাকার কারণে মেসেঞ্জারে ভিডিও কল যায় না। আবার অনেক সময় মোবাইল ফোনের মাইক্রোফোন অথবা ক্যামেরা ঠিক না থাকলে মেসেঞ্জারে ভিডিও কল যেতে চাই না।

এছাড়া আপনার মোবাইল ফোন যদি স্লো হয়ে থাকে তাহলে অনেক সময় কল যায় না। তবে এর জন্য মোবাইল ফোনটি রিস্টার্ট করতে পারেন। আবার মেসেঞ্জার অ্যাপ্লিকেশনে ক্যাশ ফাইল জমা হলে তা সেটিংস থেকে ডিলিট করতে পারেন। এই ক্যাশ ফাইল বিভিন্ন ধরনের সমস্যা করে থাকে। তাই এটি ক্লিয়ার করুন।যার ফলে মেসেঞ্জারে কল যাবে। 

আবার আপনি যে ব্যক্তিটিকে কল দিতে যাচ্ছেন সেই ব্যক্তিটি যদি আপনাকে ব্লক করে থাকে তাহলে আপনি তাকে কল দিতে পারবেন না। ফলে মেসেঞ্জারে তাকে আপনি কল করতে পারবেন না। এর জন্য আপনাকে যে ব্যক্তি ব্লক করেছে সে ব্লকটি অফ করতে হবে।

মেসেঞ্জারের মাধ্যমে ইউজারনেম পরিবর্তন করার পদ্ধতি

ফেসবুক মেসেঞ্জারে আপনার ইউজারনেম পরিবর্তন করতে নিম্নলিখিত পদক্ষেপগুলি অনুসরণ করুন।
আপনার মোবাইল ডিভাইসে ফেসবুক মেসেঞ্জার অ্যাপটি খুলুন।মেসেঞ্জারে প্রবেশ করার পর ড্রোপডাউন মেনু থেকে সেটিংস (Settings) বা সেটিংস এবং প্রাইভেসি (Privacy) বা একইরকম অপশনটি সার্চ করুন।সেটিংস এবং প্রাইভেসি অথবা সেটিংসে একইরকম অপশন থাকতে পারে।

এখানে আপনি "আকাউন্ট সিকিউরিটি" (Account Security) অথবা "প্রোফাইল" (Profile) অপশনগুলি দেখতে পাবেন।"ইউজারনেম" অথবা "ইউজার আইডি" সম্পর্কিত কোনও অপশন থাকবে। এখানে আপনি ইউজারনেম পরিবর্তন করতে একটি অপশন পাবেন।ইউজারনেম পরিবর্তন করতে ক্লিক বা ট্যাপ করুন এবং আপনি চাইলে নতুন ইউজারনেম সিলেক্ট করতে পারেন। এখানে আপনি একটি ইউজারনেম লিখতে পারবেন যা পূর্বে যত্নসাথে ব্যবহার করতে পারেননি।

আপনি নতুন ইউজারনেম প্রদান করার পরে, সেভ বা অ্যাপ্লাই অথবা সেভ করার জন্য একটি অপশন পাবেন। এটি সেভ করলে আপনার ইউজারনেম সফলভাবে পরিবর্তন হবে।

মেসেঞ্জারে মেসেজ আসলে শব্দ হয় না কেন

মেসেঞ্জারে মেসেজ আসলে যদি শব্দ হয়না তার কিছু সম্ভাব্য কারণ হতে পারে এবং এই সমস্যার সমাধানের জন্য কিছু স্টেপ নিতে পারেন।আপনার ডিভাইসে সঠিকভাবে ইন্টারনেট কানেকশন আছে কিনা তা নিশ্চিত করুন। ধীরগতি কানেকশন এবং ইন্টারনেট সংযোগ আছে কিনা তা চেক করুন। মেসেঞ্জারে নতুন আপডেট ভার্সন ইন্সটল আছে কিনা তা চেক করুন, না থাকলে মেসেঞ্জার আপডেট করুন।

আপনার ডিভাইসে স্টোরেজ যদি কমে যায় তাহলে অনেক সময় মেসেঞ্জার ঠিক ভাবে কাজ করে না। যার ফলে মেসেজ আসলে শব্দ হয় না। এর জন্য মোবাইল ফোনের বা আপনার যে ডিভাইসি হোক তার মধ্যে অতিরিক্ত অপ্রয়োজনীয় ফাইলপত্র ক্লিয়ার করুন। তাহলে আশা করছি মেসেজের ভালো মতো কাজ করবে।আর যদি আপনার ফোন কম শক্তিশালী প্রসেসর যুক্ত হয় তাহলে অনেক সময় মেসেঞ্জার অ্যাপ্লিকেশনটি মোবাইল ফোনে সাপোর্ট করে না যার কারণে ভালো মতো কাজ করে না। 

তাই মোবাইল ফোন পরিবর্তন করুন। আবার অনেক সময় মেসেঞ্জারে নোটিফিকেশন সাউন্ড অফ করা থাকে যার ফলে মেসেজ আসলে শব্দ হয় না। তাই মেসেঞ্জারে সেটিংস অপশন থেকে নোটিফিকেশন সাউন্ড এ সাউন্ড অপশনটি অন করুন। এছাড়াও মোবাইল ফোনের নিজস্ব সাউন্ড অফ করা থাকলে নোটিফিকেশন সাউন্ড হয় না। তাই মোবাইল ফোনের সাউন্ড বাড়িয়ে রাখুন। যদি তাও ভালো মতো কাজ না করে তাহলে আপনি মেসেঞ্জারে কাস্টমার সাপোর্টে রিপোর্ট করুন যে আপনার এই প্রবলেমটি হচ্ছে।

শেষ কথা ।মেসেঞ্জারে মেসেজ যায় না কেন

প্রিয় পাঠক আজকের এই পোস্টে মেসেঞ্জারে মেসেজ যায় না কেন এবং মেসেঞ্জার ওপেন হচ্ছে না কেন সেই সম্পর্কে বিস্তারিত দাওয়া হয়েছে । আপনি যদি মনোযোগ দিয়ে শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পড়ে থাকেন তাহলে উক্ত বিষয়গুলো সম্পর্কে বিস্তারিত ভাবে জানতে পারবেন। এমন তথ্য আর পাওয়ার জন্য আমদের ওয়েবসাইট ভিজিট করুন ধন্যবাদ।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

অর্ডিনারি বিডির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url