বাটন মোবাইলে বিকাশে টাকা দেখবেন যেভাবে ও বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম

প্রিয় বন্ধুরা আপনারা নিশ্চয়ই বাটন ফোনে বিকাশে টাকা দেখার নিয়ম সম্পর্কে জানতে আগ্রহী। এজন্য হয়তো আজকের পোস্টটিতে এসেছেন। তবে আপনাদের চিন্তার কোন কারণ নেই, আজকের পোস্টটিতে আমরা বাটন ফোনে বিকাশে টাকা দেখার নিয়ম ও বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা তুলে ধরব।
বাটন ফোনে বিকাশে টাকা দেখার নিয়ম ও বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম
সূচিপত্রঃআপনারা যদি বাটন মোবাইলে বিকাশ একাউন্ট খুলতে চান এবং বাটন ফোনে বিকাশে টাকা দেখার নিয়ম সম্পর্কে জানতে চান তাহলে অবশ্যই পোস্টটি শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত মনোযোগ সহকারী পড়ুন। কারণ পোস্টটিতেই বিকাশে টাকা দেখার নিয়ম গুলো আলোচনা করা হবে।

উপস্থাপনা

বর্তমানে মোবাইল ব্যাংকিং সেবা হিসেবে বিকাশে জনপ্রিয় মাধ্যম হয়ে দাঁড়িয়েছে। বিকাশ সেবার মাধ্যমে আপনারা যে কোন সময়ে টাকা লেনদেন করতে পারবেন। অনলাইনে মোবাইল ব্যাংকিং সেবা হিসেবে বিকাশ অনেক জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। আমাদের দেশের প্রায় বেশিরভাগ মানুষ বিকাশ ব্যবহার করে থাকে। তবে এমন অনেক মানুষ আছে যারা বাটন মোবাইলে বিকাশ একাউন্ট খুলতে চায়, আবার তাদের বিকাশে টাকা দেখার জন্য বাটন মোবাইল ব্যবহার করতে হয়। 
অনেকেই আছে যারা বাটন ফোনে বিকাশে টাকা দেখার নিয়ম জানেনা তাদের জন্যই আজকের এই সম্পূর্ণ পোস্টটিতে বাটন ফোনে কিভাবে বিকাশে টাকা দেখবেন সেই উপায় গুলো আলোচনা করব। তাছাড়াও যারা বাটন মোবাইল ফোন ব্যবহার করেন তারা কিভাবে বাটন ফোনে বিকাশ একাউন্ট খুলবেন সেই নিয়মগুলো আলোচনা করা হবে। তাই সকল কিছু বিস্তারিত জানতে শেষ পর্যন্ত আমাদের সাথেই থাকুন।

বাটন ফোনে বিকাশে টাকা দেখার নিয়ম 

আমাদের মধ্যে অনেকে আছে যারা বাটন মোবাইল ব্যবহার করে থাকে। তাদের ক্ষেত্রে বাটন মোবাইলেই বিকাশে টাকা দেখতে হয়। তাছাড়া যারা বিকাশ অ্যাপ ব্যবহার করতে পারেন না তারা অতি সহজেই বাটন মোবাইল ফোন ব্যবহার করে বিকাশে টাকা দেখতে পারেন। তাদের জন্যই আমরা আজকের এই অংশে বাটন ফোনে বিকাশে টাকা দেখার নিয়ম গুলো আলোচনা করব। চলুন আর কথা না বাড়িয়ে উপায় গুলো জেনে নেওয়া যাক।
  • আমি যদি বাটন মোবাইল ফোন ব্যবহার করে থাকেন তাহলে বাটন মোবাইল ফোনের ডায়াল পেডে *247# কোডটি ডায়াল করতে হবে।
  • আর মনে রাখবেন যে নাম্বারটি দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খোলা রয়েছে সেই নাম্বার দিয়েই উক্ত কোডটি ডায়াল করবেন।
  • কোড ডায়াল করার পর কিছুক্ষণ পর অনেক ধরনের অপশন দেখতে পারবেন, সেখান থেকে আপনি 9 ক্লিক করবেন। এই অপশনে My bkash লেখা রয়েছে।
  • এরপর আরো অনেকগুলো অপশন আপনার সামনে আসবে। সেখান থেকে Check Balance নামে একটি অপশন রয়েছে যেটি মূলত ১ নম্বরে রয়েছে। তাই আপনি এখন 1 নম্বর অপশনটিতে ক্লিক করবেন।
  • এবার আপনার সামনে বিকাশ একাউন্টের পিন নাম্বার চাইবে। যেখানে আপনাকে সঠিক পিন নাম্বার বসাতে হবে।
  • সঠিক পিন নাম্বার দেওয়া হয়ে গেলে ওকে বাটনে ক্লিক করলেই আপনার বিকাশ একাউন্টে কত টাকা রয়েছে তা দেখাবে। মূলত আপনার বিকাশ একাউন্ট এর ব্যালেন্স দেখতে পারবেন।
এই উপায়টি শুধুমাত্র যারা বাটন মোবাইল ফোন ব্যবহার করেন তারা ব্যবহার করতে পারেন। তাছাড়া ও যারা স্মার্টফোন ব্যবহার করেন তারা মাই বিকাশ এপ্লিকেশন ব্যবহার করে অতি সহজেই একাউন্টের ব্যালেন্স দেখতে পারবেন। তাই আমি মনে করি স্মার্টফোন ব্যবহারকারীরা অ্যাপ ব্যবহার করে টাকা দেখবেন। তবে আপনার স্মার্টফোনে যদি ইন্টারনেট সংযোগ না থাকে তাহলে আপনি এই কোড ডায়াল পদ্ধতিতেও বিকাশ একাউন্টের টাকা দেখতে পারবেন।

বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম 

বিকাশ একাউন্ট সাধারণত দুইভাবে খোলা যায়। প্রথমত আপনি সরাসরি কাস্টমার কেয়ারে গিয়ে বিকাশ একাউন্ট খুলতে পারবেন। তাছাড়া আরেকটি পদ্ধতিতে ঘরে বসে অনলাইন এর মাধ্যমে বিকাশ একাউন্ট খোলা যায়। সেটি হল my bikash অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করে অনলাইনে বিকাশ একাউন্ট খুলতে পারবেন। আমরা এখন অনলাইনের মাধ্যমে বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম গুলো আলোচনা করব।
  • অনলাইনের মাধ্যমে বিকাশ একাউন্ট খোলার জন্য প্রথমে আপনার মোবাইল ফোনে বিকাশ অ্যাপ্লিকেশনটি ডাউনলোড করে নিবেন। বিকাশ অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করার জন্য গুগল প্লে স্টোরে গিয়ে bikash লিখে সার্চ করবেন।
  • বিকাশ অ্যাপ্লিকেশন ইনস্টল হয়ে যাওয়ার পর অ্যাপটি ওপেন করুন। বিকাশ অ্যাপ ওপেন করার পর আপনার সামনে দুটি অপশন আসবে। প্রথমত নতুন বিকাশ একাউন্ট খোলার জন্য অপশন দেখতে পাবেন। আর আগের অ্যাকাউন্ট লগইন করার অপশন দেখতে পারবেন।
  • আপনারা যেহেতু নতুন একাউন্ট খুলতে চাচ্ছেন তাহলে সে ক্ষেত্রে নিউ রেজিস্টার অপশনে ক্লিক করবেন।
  • এবার আপনার সামনে মোবাইল নাম্বার চাইবে। আপনি যে মোবাইল নাম্বারে বিকাশ একাউন্ট খুলতে চাচ্ছেন সেই মোবাইল নাম্বারটি লিখবেন। তারপর প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে ফরম পূরণ করুন।
  • এরপর আপনার ভোটার আইডি কার্ড অনুযায়ী পুরো নাম, ঠিকানা, জন্মতারিখ এবং আইডি কার্ডের নাম্বার সাবমিট করুন।
  • এখন আপনার মুখ ভেরিফিকেশন করার জন্য সেলফি নিতে বলবে। এজন্য আপনি স্ক্রিনে প্রদর্শিত নিয়ম অনুযায়ী নিজের একটি সেলফি নিবেন।
  • আপনাকে এখন ৮ ডিজিটের বিকাশ পিন নম্বর সেট করতে বলা হবে, এই পিন নম্বর দিয়ে আপনি অ্যাকাউন্ট লগইন করতে পারবেন। এজন্য সঠিকভাবে মনে রাখতে পারেন এমন ধরনের পিন নাম্বার দিবেন।
  • পিন নাম্বার দেওয়া হয়ে গেলে সাবমিট অপশন এ ক্লিক করবেন। এরপর কিছুক্ষণ আপনার একাউন্ট রিভিউ অপশনে থাকবে। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে কিছুক্ষণ পর আপনার বিকাশ অ্যাকাউন্ট চালু হয়ে যাবে। এরপর থেকে আপনি বিকাশ একাউন্ট ব্যবহার করে টাকা লেনদেন করতে পারবেন।
আশা করছি আপনারা অনলাইনের মাধ্যমে বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম গুলো ভালোভাবে জেনে গেলেন। উপরের দেওয়া নিয়ম গুলো অনুসরণ করে সঠিকভাবে বিকাশ একাউন্ট খুলুন। তাহলে আপনার বিকাশ একাউন্ট দ্রুত খুলতে পারবেন।

বাটন মোবাইলে বিকাশ খোলার নিয়ম

আপনাদের মধ্যে এমন অনেক ব্যক্তি রয়েছে যারা বাটন মোবাইল ফোন ব্যবহার করে বিকাশ একাউন্ট খুলতে চায়। কিন্তু তারা বাটন মোবাইলে বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম জানে না। তাদের কথা চিন্তা করেই আমরা বাটন মোবাইল ফোনে বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম গুলো আলোচনা করব। এতে করে যাদের বাটন মোবাইল ফোন রয়েছে তারা সহজেই বিকাশ একাউন্ট খুলে বাটন মোবাইলে বিকাশ ব্যবহার করতে পারবেন।
বাটন মোবাইল ফোনের বিকাশ একাউন্ট খোলার জন্য *247# কোড ডায়াল করতে হবে। কিন্তু কোডটি ডায়াল করার পর আপনাকে বিকাশ অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করতে বলবে যা মূলত বাটন মোবাইল ফোনে করা সম্ভব নয়। বর্তমানে আর বাটন মোবাইল ফোনে সরাসরি কোড ডায়াল করে বিকাশ একাউন্ট খোলা যায় না। 
অনেক আগে কোড ডায়াল করেই বিকাশ একাউন্ট খোলা যেত। কিন্তু সেই পদ্ধতি এখন বন্ধ হয়ে গেছে। তবে আপনারা চিন্তিত হবেন না, যাদের বাটন মোবাইল ফোন হয়েছে তাদের জন্য আমরা বাটন মোবাইলে বিকাশ একাউন্ট খোলার নতুন নিয়ম তুলে ধরার চেষ্টা করব। এই নিয়ম অনুযায়ী আপনারা বাটন মোবাইলেও bkash একাউন্ট সরাসরি খুলতে পারবেন। নিম্নে নিয়ম গুলো আলোচনা করা হলোঃ
  • বাটন মোবাইল ফোনে বিকাশ একাউন্ট খোলার জন্য প্রয়োজন হবে নিজের ভোটার আইডি কার্ড, দুই কপি নিজের ছবি। তাছাড়া যে নম্বরটিতে আপনি বিকাশ একাউন্ট খুলতে চান সেই নম্বর সহ বাটন মোবাইল ফোন প্রয়োজন হবে।
  • এবার আপনি নিজের জাতীয় পরিচয় পত্র বা ভোটার আইডি কার্ড এবং ছবি নিয়ে কাস্টমার কেয়ারে যাবেন।
  • কাস্টমার কেয়ারে অবশ্যই আপনার যে নাম্বারে বিকাশ একাউন্ট খুলবেন সেই নম্বর সহ মোবাইল ফোনটি নিয়ে যাবেন।
  • এরপর বিকাশ কাস্টমার কেয়ার আপনার কাছে সকল ধরনের তথ্য চাইবে। আপনি সকল ধরনের তথ্যগুলো জমা দিয়ে কিছুক্ষণ অপেক্ষা করবেন।
  • বিকাশ কাস্টমার কেয়ার আপনার সকল তথ্যগুলো ভেরিফাই করে কিছুক্ষণের মধ্যে আপনার বিকাশ একাউন্ট খুলে দিবে। আপনারা হয়তো জানেন বিকাশ একাউন্ট খোলার জন্য পিন নাম্বার দিতে হয়। পিন নাম্বার ভালোভাবে দিবেন।
  • এরপর আপনি বিকাশ একাউন্টটি বাটন মোবাইল ফোনে ব্যবহার করতে পারবেন।
এভাবে আপনারা বাটন মোবাইল ফোনে বিকাশ একাউন্ট খুলতে পারেন। বিকাশ কাস্টমার কেয়ার ছাড়া বাটন মোবাইলে বিকাশ একাউন্ট খুলতে পারবেন না। তাই আপনি যদি বাটন মোবাইল ফোন ব্যবহার করে থাকেন বিকাশ একাউন্ট খোলার জন্য উপরের দেওয়া প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টসহ বিকাশ কাস্টমার কেয়ারে চলে যাবেন। তারাই আপনাকে অ্যাকাউন্ট ওপেন করে দিবে।

বিকাশে টাকা পাঠানোর নিয়ম

আপনারা অনেকেই বিকাশে টাকা পাঠানোর নিয়ম সম্পর্কে জানতে চান। সাধারণত বিকাশে দুটি পদ্ধতিতে টাকা পাঠানো যায়। আপনি বিকাশে টাকা লেনদেন করার জন্য দুইটি উপায়ে অবলম্বন করতে পারেন। প্রথমত বিকাশ কোড ডায়াল করে টাকা পাঠাতে পারেন। আর দ্বিতীয়ত বিকাশ এপ্লিকেশন ব্যবহার করে অতি সহজেই টাকা আদান প্রদান করতে পারেন। চলুন আমরা সেই নিয়মগুলো জেনে নেই।

বিকাশ কোড ডায়াল করে বিকাশে টাকা পাঠানোর নিয়মঃ
  • মোবাইল ফোনে আপনি *247# কোড ডায়াল করবেন। যেই নাম্বারে বিকাশ একাউন্ট খোলা রয়েছে সেই নাম্বারটিতে কোডটি ডায়াল করবেন।
  • এবার আপনার সামনে অনেকগুলো অপশন আসবে সেখান থেকে Send Money অপশনটি সিলেক্ট করবেন। এই অপশনটি মূলত দুই নম্বরে রয়েছে এজন্য ২ লিখে সেন্ড করবেন।
  • এরপর আপনার সামনে আরেকটি অপশন শো করবে। যেখানে মূলত আপনি যাকে টাকা পাঠাতে চাচ্ছেন তার নাম্বার চাইবে। আপনি যেই নাম্বারে টাকা পাঠাবেন সেই নম্বরটি বসিয়ে ওকে বাটনে ক্লিক করুন।
  • এখন টাকা পাঠানোর পরিমান লিখতে হবে অর্থাৎ উক্ত নম্বরে কত টাকা পাঠাতে চাচ্ছেন তার পরিমাণ লিখতে হবে। টাকার পরিমাণ লিখে সেন্ড অপশন এ ক্লিক করুন।
  • এবার আপনার সামনে বিকাশ পিন নম্বর দিতে বলবে। বিকাশ পিন নম্বর দিয়ে ওকে বাটনে ক্লিক করুন। কিছুক্ষণ পর আপনার দেওয়া নাম্বারে টাকা চলে যাবে। এভাবেই আপনি কোড ডায়াল পদ্ধতিতে বিকাশ একাউন্টে টাকা পাঠাতে পারবেন।
বিকাশের এপস ব্যবহার করে টাকা পাঠানোর নিয়মঃ
  • প্রথমেই মোবাইল ফোনে বিকাশ অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করে নিবেন। তারপর আপনার একাউন্টে লগইন করবেন।
  • অ্যাকাউন্ট লগইন করা হয়ে গেলে সেন্ড মানি নামক অপশন পাবেন সেটিতে ক্লিক করবেন।
  • উক্ত অপশন এ ক্লিক করার পর নাম্বার দিতে বলবে অর্থাৎ যে নাম্বারে টাকা পাঠাবেন সেই নাম্বারটি লিখবেন।
  • নাম্বার লেখার পর এরো বাটনে ক্লিক করবেন। এবার আপনার সামনে টাকার পরিমাণ লিখতে বলবে। আপনি যত টাকা পাঠাবেন তার পরিমাণ লিখবেন।
  • এখন আপনার সামনে পিন নাম্বার চাইবে। একাউন্টের পিন নাম্বার দিয়ে ট্যাপ করে ধরে রাখুন কিছুক্ষণ পর কাঙ্খিত নাম্বারে টাকা চলে যাবে।

বিকাশে টাকা পাঠানোর খরচ কত

বর্তমানে বিকাশ অ্যাপ ব্যবহার করে প্রতি মাসে পাঁচটি প্রিয় নাম্বার অ্যাড করে ফ্রিতেই টাকা পাঠাতে পারবেন। প্রিয় নাম্বার এড করার মাধ্যমে কোনরকম চার্জ ছাড়াই সেন্ড মানি করা যায়। তবে প্রতি মাসে আপনি শুধুমাত্র ২৫ হাজার টাকা পর্যন্ত সেন্ড মানি ফ্রিতে করতে পারবেন। বিকাশ একাউন্ট থেকে ক্যাশ আউট করতে প্রতি হাজারে খরচ হয় ১৮.৫০ টাকা।

বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম সম্পর্কিত সাধারণ জিজ্ঞাসা(FAQ)

প্রশ্নঃবিকাশে সর্বোচ্চ কত টাকা ক্যাশ আউট করা যায়?
উত্তরঃ বিকাশ পার্সোনাল অ্যাকাউন্ট থেকে সর্বোচ্চ ২৫ হাজার টাকা ক্যাশ আউট করা যাবে। আর এটিএম বুথ থেকে বিকাশ ব্যবহার করে সর্বোচ্চ ১,৫০,০০০ টাকা ক্যাশআউট করা যাবে।

প্রশ্নঃবিকাশে একদিনে কত টাকা ক্যাশ আউট করা যায়?
উত্তরঃ বিকাশে একদিনে পার্সোনাল একাউন্ট থেকে ২৫ হাজার টাকা পর্যন্ত ক্যাশ আউট করা যায়।

প্রশ্নঃঅ্যাপ ছাড়া বিকাশ থেকে টাকা পাঠানোর উপায়?
উত্তরঃ অ্যাপ ছাড়া বিকাশ থেকে টাকা পাঠানো যায়। বিকাশে ব্যবহার করা ছাড়া বিকাশের কোড *247# ডায়াল করার মাধ্যমে টাকা পাঠাতে পারবেন।

প্রশ্নঃবাটন ফোনে বিকাশ কিভাবে খুলবো?
উত্তরঃ বাটন ফোনে বিকাশ একাউন্ট আপনি সরাসরি কাস্টমার কেয়ারে গিয়ে খুলতে পারবেন।

মূল কথা

প্রিয় বন্ধুরা আশা করছি আপনারা এতক্ষণে সম্পূর্ণ পোস্টটিতে বাটন ফোনে বিকাশে টাকা দেখার নিয়ম ও বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম সম্পর্কে জানতে পেরেছেন। তাছাড়া বিকাশ একাউন্টে টাকা পাঠানোর নিয়ম ও খরচ সম্পর্কে পরিচিত আলোচনা করা হয়েছে। আশা করছি আপনারা বিকাশ একাউন্ট সম্পর্কিত বিস্তারিত তথ্য জানতে পেরেছেন। যার ফলে আপনারা সহজেই এখন বিকাশ অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করে টাকা পাঠাতে পারবেন।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

অর্ডিনারি বিডির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url