প্রতিদিন ডলার ইনকাম করুন বিকাশ পেমেন্ট সহজেই নিয়ে নিন

প্রিয় বন্ধুরা আপনারা নিশ্চয়ই প্রতিদিন ডলার ইনকাম করার উপায় সম্পর্কে জানতে আজকের পোস্টটিতে এসেছেন। বর্তমানে সকলেই ঘরে বসে অনলাইন এর মাধ্যমে ডলার ইনকাম করে বিকাশে পেমেন্ট নিচ্ছে। আপনারাও চাইলে ডলার ইনকাম করে বিকাশ পেমেন্ট নিতে পারেন। তাই আপনাদের জানার সুবিধার্থে আজকের এই পোস্টটিতে ডলার ইনকাম বিকাশ পেমেন্ট সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করার চেষ্টা করব।
ডলার ইনকাম বিকাশ পেমেন্ট
আর্টিকেল সূচিপত্রঃআপনারা যদি ঘরে বসে অনলাইনের মাধ্যমে ডলার ইনকাম করতে চান তাহলে অবশ্যই পোস্টটি শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত মনোযোগ সহকারে পড়ুন। কারণ আজকের পোস্টে অনলাইন ইনকামের উপায় অর্থাৎ অনলাইনে ডলার আয় করার উপায় সম্পর্কে বিস্তারিত তুলে ধরা হবে।

ভূমিকা

বর্তমানে এই আধুনিক যুগে সকলে প্রায় অনলাইনে ঘরে বসে ইনকাম করতে চায়। তবে ঘরে বসে অনলাইনে ইনকাম করার বিভিন্ন ধরনের উপায় রয়েছে, সেই উপায় গুলো আপনারা জেনে কাজ করলে অনলাইনের মাধ্যমেই টাকা ইনকাম করতে পারবেন। অনলাইনে খুব সহজেই টাকা আয় করা যায়, আপনি যদি বুদ্ধি খাটিয়ে কাজ করতে পারেন তাহলেই অনলাইন থেকে একমাত্র ভালো পরিমান আয় করতে পারবেন। 

আপনারা যারা ফ্রিল্যান্সিং করেন তারা নিশ্চয়ই ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসগুলোতে কাজ করে থাকেন। আর এই ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসগুলোতে কাজ করে ডলার ইনকাম করা যায় এবং সেটি বিকাশে পেমেন্ট নেওয়া যায়। ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস ছাড়াও আরো অনেক ধরনের ওয়েবসাইট রয়েছে যেখানে কাজ করে ডলার ইনকাম বিকাশে পেমেন্ট নিতে পারবেন। 
বর্তমানে ডলার ইনকাম করার বিভিন্ন ধরনের ওয়েবসাইট ও অ্যাপস রয়েছে যেখানে আপনি কাজ করে খুব সহজেই ডলার আয় করতে পারবেন। আর এই ডলার এক্সচেঞ্জ করে বিকাশে পেমেন্ট নিতে পারবেন। তাই আর দেরি না করে সম্পূর্ণ পোস্টটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন তাহলে আপনি বিস্তারিত জানতে পারবেন।

ডলার ইনকাম বিকাশ পেমেন্ট

আপনার হয়তো ডলার ইনকাম বিকাশ পেমেন্ট সম্পর্কে জানার জন্য এতক্ষণ ধরে অপেক্ষা করে রয়েছেন, তবে আপনারা চিন্তিত হবেন না। আমরা এখন এই অংশটিতে ডলার ইনকাম করে বিকাশ পেমেন্ট নেওয়ার উপায় গুলো তুলে ধরার চেষ্টা করব। আপনি বিভিন্ন উপায়ে ডলার ইনকাম করে বিকাশে পেমেন্ট নিতে পারবেন। 
আপনাদের শুধু সেই উপায় গুলো ভালোভাবে জানতে হবে। ডলার ইনকাম করার বিভিন্ন ধরনের ওয়েবসাইট রয়েছে যেখানে কাজ করে ভালো পরিমাণ ডলার আয় করা সম্ভব। নিচে ডলার ইনকাম বিকাশে পেমেন্ট নেওয়ার উপায় গুলো তুলে ধরা হলোঃ
  • Fiverr.com
  • Freelancer.com
  • Clickbank
  • Quick Rewards
  • ySense
  • Inbox Dollars
  • Prize Rebel
  • Captcha
আপনারা উপর দেখানো ওয়েবসাইটগুলো থেকে প্রতিদিন ডলার ইনকাম করে বিকাশে পেমেন্ট নিতে পারবেন। এই ওয়েবসাইট গুলোতে কাজ করে ডলার ইনকাম করা যায়। ডলার ইনকাম করতে হলে আপনাকে প্রতিদিন উপরের দেওয়া ওয়েবসাইটগুলোতে কাজ করতে হবে। ওয়েবসাইটগুলোতে বিভিন্ন ধরনের কাজ করার মাধ্যমেই আপনি একমাত্র ডলার আয় করতে সক্ষম হবে। তবে চলুন এখন সেই ওয়েবসাইটগুলো সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেই।

Fiverr.com থেকে ডলার ইনকাম

আপনারা ফাইবারে বিভিন্ন ধরনের ফ্রিল্যান্সিং কাজ করার মাধ্যমে ডলার ইনকাম করতে পারবেন। বর্তমানে ডলার ইনকাম করার সবচেয়ে জনপ্রিয় ওয়েব সাইট হল ফাইবার ডট কম। এই ওয়েবসাইটে বিভিন্ন ধরনের কাজ করে খুব সহজেই ডলার ইনকাম করা যায়। তবে ফাইবার থেকে ডলার ইনকাম করার জন্য কাজের দক্ষতা থাকতে হবে তাহলে একমাত্র আপনি ফাইবার থেকে প্রচুর ডলার আয় করতে সক্ষম হবেন। 
ফাইবারে যেহেতু ফ্রিল্যান্সিং বিষয়ে কাজ করতে হয়, সে ক্ষেত্রে আপনাকে ফ্রিল্যান্সিং এর যে কোন একটি বিষয় ভালো জানতে হবে। তাহলে আপনি ফাইবার থেকে প্রতিদিন ৫০ থেকে ৬০ ডলার পর্যন্ত আয় করতে পারবেন। ফাইবারে যেহেতু ইন্টারন্যাশনাল কোম্পানি, আপনাদের পেমেন্ট ডলারে করবে এবং সেটি আপনি ব্যাংক থেকে বিকাশে পেমেন্ট নিতে পারবেন। 
ডলার ইনকাম বিকাশ পেমেন্ট
আর ফাইবারে বেশিরভাগ বিদেশি বায়ারদের জন্য কাজ করতে হয়, আর বিদেশীরা সাধারণত ডলারে পেমেন্ট করে থাকে। যার ফলে আপনি অতি সহজেই তাদের কাজগুলো করে দিয়ে প্রতিদিন ৬০ থেকে ৭০ ডলার আয় করতে পারবেন। মূলত আপনার কাজের দক্ষতা ও অভিজ্ঞতার উপর নির্ভর করে ডলার কমবেশি হয়ে থাকবে। আপনি যত কাজের দক্ষতা দেখাতে পারবেন আপনি তত মার্কেটপ্লেসে ডলার বেশি ইনকাম করবেন।

Freelancer.com থেকে ডলার ইনকাম

Freelancer.com হল ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস। এখানে আপনারা বিভিন্ন ধরনের বিদেশি ক্লায়েন্টদের কাজ করে ডলার আয় করতে পারবেন। এটিও ফাইবারের মতো ফ্রিল্যান্সিং ওয়েবসাইট। এই ওয়েবসাইটে কাজ করার জন্য আপনাদের অবশ্যই ফ্রিল্যান্সিং কাজসমূহ শিখতে হবে। ফ্রিল্যান্সিং কাজের দক্ষতা ছাড়া আপনি এই মার্কেটপ্লেস থেকে ডলার ইনকাম করতে পারবেন না। 

আপনি যদি ফ্রিল্যান্সিং কাজ সময়ে সমূহে এক্সপার্ট হয়ে থাকেন তাহলে আপনি এই ওয়েবসাইট থেকে ডলার আয় করতে পারবেন। ফ্রিল্যান্সার প্রতি মাসে হাজার হাজার টাকা আয় করছে এই মার্কেটপ্লেস থেকে। অনেকেই এই মার্কেটপ্লেস থেকে প্রতি মাসে লাখ টাকা পর্যন্ত আয় করে ফেলছে। 
আপনি যদি ফ্রিল্যান্সিং এর কাজ সময়ে দক্ষতা অর্জন করে থাকেন তাহলেও আপনি এই ফ্রিল্যান্সার ডটকম থেকে মাসে হাজার ডলার পর্যন্ত আয় করতে সক্ষম হবেন। তাই আপনারা অবশ্যই ফ্রিল্যান্সার ডটকমের ফ্রিল্যান্সিং কাজ সমূহ শিখবেন এবং প্রতিদিন ডলার ইনকাম করবেন। আপনারা এই মার্কেটপ্লেস থেকে পেমেন্ট ডলারে পাবেন এবং সেটি বিকাশে নিয়ে নিতে পারবেন।

Clickbank থেকে ডলার ইনকাম

আপনারা Clickbank থেকে প্রতিদিন ডলার ইনকাম করতে পারবেন। এখানে কাজ করার পদ্ধতি রয়েছে, তাদের নিয়ম অনুযায়ী কাজ করলে আপনি প্রতিদিন প্রচুর ডলার আয় করতে পারবেন। এখানে সাধারণত কমিশনের ভিত্তিতে পেমেন্ট দেওয়া হয়ে থাকে। আপনি যদি তাদের ২০০ ডলারের একটি পণ্য বিক্রি করে দিতে পারেন তাহলে আপনি সেখান থেকে ১৫০ ডলার কমিশন পাবেন। 

এই ওয়েবসাইটটিতে আপনি প্রতিদিন অনেক টাকা পর্যন্ত আয় করতে পারবেন। আপনি তাদের পণ্য বিক্রি করে দিতে পারলে আপনি সেখান থেকে নির্দিষ্ট পরিমাণ কমিশন পাবেন। সেই কমিশন মূলত ডলারে দেওয়া হয়ে থাকে। আর এই ডলারগুলো আপনি বিকাশে পেমেন্ট নিতে পারবেন।

Quick Rewards থেকে ডলার ইনকাম

এই ওয়েবসাইটটিতে আপনি বিভিন্ন ধরনের একটা ছোটখাটো কাজ করে অনলাইনে ডলার ইনকাম করতে পারবেন। ডলার ইনকাম করার অন্যতম সেরা ওয়েবসাইট এটি। এখানে আপনি গেম খেলে , ভিডিও দেখে , সার্ভে করে , টাক্স কমপ্লিট করে ডলার আয় করতে পারবেন। এই ওয়েবসাইটটিতে বিভিন্ন ধরনের কাজ রয়েছে সেই কাজগুলো আপনি কমপ্লিট করার মাধ্যমে ডলার ইনকাম করে পেমেন্ট নিতে পারবেন। 
এই ওয়েবসাইটে আপনি যত ডলার ইনকাম করবেন সেটি আপনি সাথে সাথে উইথড্র দিতে পারবেন। আর এখানে পেপাল সহ প্রায় পঞ্চাশটিরও বেশি উইথড্র করার অপশন রয়েছে। অর্থাৎ 50 টি বেশি প্ল্যাটফর্ম থেকে আপনি ডলার উইড্র করতে পারবেন। তাছাড়াও ডলারগুলো আপনি গিফট কার্ডের মাধ্যমে নিতে পারবেন। 
Quick Rewards
এই ওয়েবসাইট আপনি দৈনিক সার্ভে করেই ৫ থেকে ১০ ডলার আয় করতে পারবেন। তাই দেরি না করে এখনই এই ওয়েবসাইটে কাজ করা শুরু করে দিন। ওয়েবসাইটটিতে কাজ করার জন্য গুগল ক্রোম বাজারে গিয়ে Quick Rewards লিখে সার্চ করুন। আপনার সামনে ওয়েবসাইটটি চলে আসবে। এবার ওয়েবসাইটটিতে ফ্রিতে একটি অ্যাকাউন্ট খুলে নিবেন। একাউন্ট খোলার পর আপনি এখানে কাজ করতে পারবেন।

ySense থেকে ডলার ইনকাম

ডলার ইনকাম করার অন্যতম বিদেশি সাইট হল ySense। এই ওয়েবসাইটটিতে সার্ভে করে প্রচুর ডলার আয় করা যায়। এটি মূলত একটি সার্ভে ওয়েবসাইট, যেখানে প্রতিনিয়ত পেইড সার্ভে করা হয়ে থাকে। আপনি যদি এখানে পেইড সার্ভে করতে পারেন তাহলে অনেক ডলার পর্যন্ত আয় করতে সক্ষম হবেন। তাছাড়া এই ওয়েবসাইটটিতেও ছোট ছোট কাজ করে ক্যাশ রিওয়ার্ড পেতে পারেন। 
ySense
যেমনঃ গেম খেলে , বিভিন্ন ওয়েবসাইট ভিজিট করে , ভিডিও দেখে আপনি ইনকাম করতে পারবেন। বর্তমান সময়ে অনলাইন থেকে ডলার আয় করার সবচেয়ে সহজ মাধ্যম হচ্ছে সার্ভে করা। আপনি এই ওয়েবসাইটে সার্ভে করে প্রতিদিন ডলার আয় করতে পারবেন। 

আপনারা যারা মূলত সার্ভে করতে পছন্দ করেন এবং কুইজ খেলতে ভালোবাসেন তারা এই ওয়েবসাইটগুলোতে কাজ করতে পারেন। তাছাড়াও এই ওয়েবসাইটটিতে রেফারেল করার মাধ্যমে ডলার আয় করা যায়। আপনি যদি আপনার বন্ধুদের কাছে ওয়েবসাইট রেফার করেন তাহলে তারা যত ইনকাম করবে তার থেকে আপনি ৩০ পার্সেন্ট রেফার কমিশন পাবেন। 

Inbox Dollars থেকে ডলার ইনকাম করুন

আপনারা এই ইনবক্স ডলার ওয়েবসাইট থেকেও সার্ভে করার মাধ্যমে প্রচুর টাকা আয় করতে পারবেন। এখানে বিভিন্ন ধরনের সার্ভে করার অপশন রয়েছে। তাছাড়া ওয়েবসাইটটিতে সর্বপ্রথম সাইন আপ করলেই সাথে সাথে ৫ ডলার দেওয়া হয়। আর ওয়েবসাইটটিতে আপনার একাউন্টের প্রোফাইল সকল তথ্য দিয়ে কমপ্লিট করলেই ০.৫০ ডলার ক্যাশ রিওয়ার্ড দেওয়া হয়। এছাড়াও ওয়েবসাইটটিতে পেইড সার্ভে করলে প্রতিদিন অনেক ডলার পর্যন্ত আয় করতে পারবেন। 
Inbox Dollars
এই ওয়েবসাইটটিতে আপনি গেম খেলেও ডলার আয় করতে পারবেন। পাশাপাশি ভিডিও দেখে , অ্যাপ ডাউনলোড করে , অ্যাপ্লিকেশন টেস্ট করে , অ্যাকাউন্ট সাইনআপ ইত্যাদি ছোট ছোট কাজ করে আপনি ডলার আয় করতে পারবেন। আপনারা যারা শিক্ষার্থী যারা রয়েছেন তারা পার্ট টাইম কাজ করার জন্য অনলাইনে এই ওয়েবসাইটটিতে কাজ করতে পারেন।আপনি এখানে ডলার পাবেন এবং সেটি বিকাশে পেমেন্ট নিতে পারবেন।

Prize Rebel থেকে ডলার আয়

এটি মূলত একটি পেইড সার্ভে ওয়েবসাইট, এখানে আপনি বিভিন্ন সার্ভে করে ডলার আয় করতে পারবেন। এই ওয়েবসাইটে আপনি শুধুমাত্র সার্ভে করেই প্রতিদিন ডলার ইনকাম করতে পারবেন। সার্ভে ছাড়া এই ওয়েবসাইটে অন্য কোন ইনকাম করার উপায় নেই। আপনি সার্ভে করে যত ডলার আয় করবেন সেটি আপনি Paypal Cash, Bitcoins & Gift Cards হিসেবে নিতে পারবেন। আপনি চাইলে ডলারগুলো বিটকয়েনে পেমেন্ট নিতে পারবেন। 
Paypal Cash, Bitcoins & Gift Cards
এটি একটি অনেক পুরনো ওয়েবসাইট, যেখানে প্রায় 15 মিলিয়নের বেশি মানুষ কাজ করে থাকে। আপনি এখানে প্রশ্নের উত্তর দেয়ার মাধ্যমে প্রতিদিন ৫ থেকে ১০ ডলার পর্যন্ত আয় করতে পারবেন। মূলত আপনি এই ওয়েবসাইটটিতে যত সময় দিবেন তত ইনকাম বৃদ্ধি করতে পারবেন। আপনি এভাবেই ডলার ইনকাম বিকাশে পেমেন্ট নিতে পারবেন।

Captcha থেকে ডলার ইনকাম

বর্তমান সময়ে অনলাইন থেকে ডলার ইনকাম করার সবচেয়ে সহজ মাধ্যম হলো ক্যাপচা পূরণ করা।Captcha পূরণ করে আপনি প্রতিদিন ১০ থেকে ২০ ডলার আয় করতে পারবেন। আমরা অনেক সময় বিভিন্ন ওয়েবসাইটে প্রবেশ করার সময় দেখে থাকি ক্যাপচা পূরণ করতে বলে।সাধারণত এই ধরনের ক্যাপচা পূরণ করার মাধ্যমে এই ডলার আয় করা যায়। এজন্য আপনাদের ক্যাপচা পূরণ করার ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে। 
ক্যাপচা কিভাবে পূরণ করতে হয় আপনি এটি ইউটিউবে দেখে নিতে পারেন। এই ক্যাপচা পূরণ করে মানুষ হাজার হাজার টাকা আয় করছে। আপনি যদি প্রতিদিন ছোট ছোট কাজ করে ইনকাম করতে চান তাহলে ক্যাপচা পূরণের কাজ করতে পারেন।এখান থেকে ডলার ইনকাম করে আপনি সেটি বিকাশে পেমেন্ট নিতে পারবেন।

ডলার ইনকাম করার বিদেশি ওয়েবসাইট তালিকা

আপনার অনেকেই ডলার ইনকাম করার বিদেশি ওয়েবসাইট খুঁজে থাকেন। সাধারণত বিদেশী ওয়েবসাইট গুলোতে ডলার এ পেমেন্ট পাওয়া যায়। আর এই বিদেশী ওয়েবসাইটগুলোতে খুব সহজেই দ্রুত সময়ে ইনকাম করা যায়। এজন্য প্রায় সকলেই ডলার ইনকাম করার জন্য বিদেশী ওয়েবসাইট খুঁজে থাকে। তাই আমরা আজকের এই অংশে ডলার ইনকাম বিকাশে পেমেন্ট নেওয়ার ওয়েবসাইটগুলোর নাম সম্পর্কে তুলে ধরব। নিম্নে ডলার ইনকাম করার বিদেশি ওয়েবসাইট তালিকা তুলে ধরা হলোঃ
  • Prize Rebel
  • InstaGC
  • Feature Points
  • Earnably
  • Toluna
  • Poll Pay
  • ySense
  • Inbox Dollars
  • Swagbucks
  • Quick Rewards
  • User Testing
আপনারা উপরে দেখানো ওয়েবসাইট গুলোতে কাজ করে ডলার ইনকাম করে বিকাশে পেমেন্ট নিতে পারবেন। উপরে দেখানো বিদেশি ওয়েবসাইটগুলোতে আপনারা কাজ করে খুব সহজে ডলার আয় করতে পারবেন। এখানে ডলার আয় করে দ্রুত পেমেন্ট পাওয়া যায়।।

আর্টিকেল রাইটিং করে ডলার ইনকাম

আপনারা চাইলে আর্টিকেল রাইটিং করে ডলার ইনকাম করতে পারেন। বর্তমানে ফ্রিল্যান্সিং মার্কেট গুলোতে ইংরেজি আর্টিকেল লেখার মাধ্যমে ডলার ইনকাম করা যাচ্ছে। আপনি যদি ইংরেজিতে পারদর্শী হয়ে থাকেন তাহলে ইংলিশ আর্টিকেল লেখার মাধ্যমে প্রচুর ডলার আয় করতে পারবেন। কারণ ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসগুলোতে ইংলিশ আর্টিকেলের প্রচুর চাহিদা রয়েছে। যার কারণে ইংলিশ আর্টিকেল গুলোতে বেশি ডলার পেমেন্ট দেওয়া হয়ে থাকে। 

আর্টিকেল রাইটিং করার জন্য আপনাকে অবশ্যই কনটেন্ট রাইটিং সম্পর্কে জানতে হবে। আপনি আর্টিকেল লাইটিং ভালোভাবে শিখে নিবেন তারপর মার্কেটপ্লেসে কাজ করে ডলার ইনকাম করতে পারবেন। বর্তমানে ফ্রিল্যান্সিং এর অনেক মার্কেটপ্লেস রয়েছে, যেখানে আর্টিকেল লিখে প্রতিদিন ১০ থেকে ২০ ডলার ইনকাম করা যায়। তাছাড়াও ইংরেজি আর্টিকেল লিখে দিলে ৫০ থেকে ১০০ ডলার পর্যন্ত আয় করা যায়। 

তাই আপনারা ভালোভাবে আর্টিকেল লেখা শিখে তারপরে কাজ করা শুরু করবেন। আর্টিকেল রাইটিং শিখতে হলে তেমন কোন অভিজ্ঞতা ও দক্ষতার প্রয়োজন হয় না, আপনি খুব সহজেই বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে আর্টিকেল রাইটিং শিখে নিতে পারবেন। তাছাড়া বর্তমানে ফ্রিতে ইউটিউব দেখে আর্টিকেল রাইটিং শেখা যায়। বিশেষ করে শিক্ষার্থীরা আর্টিকেল রাইটিং শিখে প্রতিদিন ডলার ইনকাম করতে পারেন। শিক্ষার্থীদের জন্য কিছু জনপ্রিয় ফ্রিল্যান্সিং ওয়েবসাইট রয়েছে যেখানে আর্টিকেল রাইটিং করে প্রচুর ডলার আয় করতে পারবেন।

ইউটিউব ভিডিও বানিয়ে ডলার ইনকাম

Youtube ভিডিও তৈরি করার মাধ্যমে ও ডলার আয় করা সম্ভব। বর্তমান বিশ্বে প্রায় কম বেশি সকলেই ইউটিউবে ভিডিও বানিয়ে প্রচুর ডলার আয় করছে। কারণ ইউটিউবে ভিডিও বানিয়ে অনেক ডলার পর্যন্ত আয় করা যায়। আপনার ভিডিওতে যত ভিউজ আসবে তার ভিত্তিতে আপনি ডলার পাবেন। তবে আপনার youtube এর ভিডিও গুলো ইউনিক হতে হবে, অর্থাৎ ইউটিউবে নিজের বানানো ভিডিও আপলোড করতে হবে। 
আপনি ইউটিউব চ্যানেল খুলে ভিডিও বানিয়ে ডলার ইনকাম করতে পারবেন। আপনার youtube চ্যানেলে নির্দিষ্ট পরিমাণ ভিজিটর আসলে সেখানে আপনি মনিটাইজেশন এপ্লাই করে এডসেন্স থেকে আয় করতে পারবেন। বর্তমানে ডলার ইনকাম করার সবচেয়ে সহজ উপায় হলো ইউটিউব। 

এই ইউটিউবে ভিডিও বানিয়ে মানুষ হাজার হাজার ডলার আয় করছে। তাই আপনারাও ইউটিউবে ভিডিও বানানোর মাধ্যমে খুব সহজেই ডলার আয় করতে পারবেন, তবে আপনাদের ধৈর্য সহকারে পরিশ্রম দিয়ে কাজ করে যেতে হবে। কারণ অনলাইন থেকে আয় করতে হলে একটু পরিশ্রম ও ধৈর্য দিয়ে কাজ করতে হয়।

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে ডলার ইনকাম

আপনার ব্লগিং ওয়েবসাইট অথবা ইউটিউব চ্যানেল থাকলে সেখানে আপনি এফিলিয়েট মার্কেটিং করে প্রচুর ডলার আয় করতে পারবেন। বর্তমানে বিদেশি ও দেশি কোম্পানিগুলো তাদের পণ্যের প্রচার করার জন্য এফিলিয়েট মার্কেটিং এর সাহায্য নিয়ে থাকে। আপনি যদি তাদের পণ্য প্রচার এফিলিয়েট লিংক এর মাধ্যমে করে দিতে পারেন তাহলে আপনারা তাদের কাছ থেকে নির্দিষ্ট পরিমাণ কমিশন পেতে পারেন। 

আর সেই কমিশন আপনি ডলার অথবা টাকাতেও পেতে পারেন। তাই আপনার যদি ফেসবুক পেজ , ইউটিউব চ্যানেল , ওয়েবসাইট থাকে তাহলে আপনি সেখানে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে ডলার ইনকাম করতে পারবেন এবং সেটি বিকাশে পেমেন্ট নিতে পারবেন। এভাবেই ডলার ইনকাম বিকাশে পেমেন্ট নেওয়া সম্ভব।

ব্লগিং করে ডলার ইনকাম

আপনি ব্লগিং ওয়েবসাইট খুলে ডলার ইনকাম করতে পারবেন। আপনার যদি একটি ব্লগিং ওয়েবসাইট থাকে তাহলে আপনি সেখানে আর্টিকেল লিখে আয় করতে পারবেন। ব্লগিং ওয়েবসাইটগুলোতে কনটেন্ট রাইটিং করার মাধ্যমে আয় করা সম্ভব। আপনি একটি ব্লগিং ওয়েবসাইট খুলে সেখানে প্রতিদিন নিয়ম অনুযায়ী আর্টিকেল লিখে পাবলিশ করলে ডলার আয় করতে পারবেন। আর আপনি যত ডলার আয় করবেন সেটি ব্যাংকের মাধ্যমে পেমেন্ট নিতে পারবেন। 
তবে ব্লগিং করার জন্য আর্টিকেল রাইটিং সম্পর্কে জানতে হয়। আপনি যদি আর্টিকেল রাইটিং শিখতে পারেন তাহলেই ব্লগিং করে ইনকাম করতে পারবেন। বর্তমানে অনলাইন থেকে ডলার ইনকাম করার সবচেয়ে সহজ মাধ্যম হচ্ছে ব্লগিং করা। আপনি যদি ব্লগিং করে ইনকাম করতে চান তাহলে নিঃসন্দেহ করতে পারেন। তবে ব্লগিং করতে এসইও , আর্টিকেল রাইটিং , কন্টেন্ট ম্যানেজমেন্ট সহ আরো অনেক বিষয় রয়েছে যেগুলো ভালোভাবে জানতে হবে। 

আপনার ব্লগিং ওয়েবসাইটে নির্দিষ্ট পরিমাণ ভিজিটর আসলে আপনি গুগল এডসেন্সের জন্য এপ্লাই করতে পারেন। আর google এডসেন্সে এপ্রুভ পেয়ে গেলে আপনি সেখান থেকে ডলার আয় করতে পারবেন। এজন্য আপনাদের গুগলের নিয়ম নীতি অনুযায়ী ব্লগিং ওয়েবসাইট তৈরি করতে হবে।

ফ্রিল্যান্সিং করে ডলার ইনকাম

ফ্রিল্যান্সিং করে আপনি হাজার হাজার ডলার আয় করতে পারবেন।আপনি যদি একজন দক্ষ ফ্রিল্যান্সার হয়ে থাকেন তাহলে ফ্রিল্যান্সিং করে মাসে লক্ষ টাকা পর্যন্ত আয় করতে পারবেন। অনেকেই বর্তমানে ফ্রিল্যান্সিং করে হাজার হাজার ডলার আয় করছে। ফ্রিল্যান্সিং এ আয় করার জন্য অবশ্যই কাজের দক্ষতা ও অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। 
ফ্রিল্যান্সিং এর বিভিন্ন ধরনের কাজ করা যায়, সেই কাজগুলোর মধ্যে আপনি যেকোনো একটিতে ভালোমতো এক্সপার্ট হয়ে থাকলে, সেই কাজটি করে ডলার আয় করতে পারবেন। ফ্রিল্যান্সিং সেক্টরে বিভিন্ন ধরনের কাজ রয়েছে, যার মধ্যে সবচেয়ে সহজ কাজ হল ডাটা এন্ট্রির কাজ। আপনারা শিক্ষার্থীরা ফ্রিল্যান্সিং এর প্রথম দিকে ডাটা এন্ট্রি কাজ দিয়ে শুরু করতে পারেন। 

এই কাজটি করে আপনি প্রতিদিন ১০ থেকে ২০ ডলার পর্যন্ত আয় করতে পারবেন। তাছাড়াও আরো অনেক ধরনের ফ্রিল্যান্সিং কাজ রয়েছে যেগুলো করার মাধ্যমে প্রচুর টাকা আয় করতে পারবেন। তাই আপনি যদি অনলাইন থেকে ডলার ইনকাম করতে চান তাহলে অবশ্যই ফ্রিল্যান্সিং করতে পারেন। ফ্রিল্যান্সিং করার পূর্বে ফ্রিল্যান্সিং বিষয়গুলো ভালোভাবে জেনে নিবেন এবং ফ্রিল্যান্সিংয়ের কাজগুলো শিখবেন।

লেখকের মন্তব্য

প্রিয় পাঠক বন্ধুরা আশা করছি আপনারা আজকের এই সম্পূর্ণ পোস্টটিতে ডলার ইনকাম বিকাশ পেমেন্ট সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জেনে গেছেন। তাছাড়াও পোস্টটিতে ডলার ইনকাম করার বিদেশি ওয়েবসাইটের নামের তালিকা তুলে ধরা হয়েছে, এই ওয়েবসাইটগুলোতে আপনি কাজ করে প্রতিদিন ডলার আয় করতে পারবেন। 

মূলত পোস্টটিতে ডলার ইনকাম করার বিভিন্ন উপায় তুলে ধরা হয়েছে, আপনারা যদি সঠিক নিয়ম মেনে কাজ করে যান তাহলে অনলাইন থেকে ডলার আয় করতে পারবেন। বর্তমান সময়ে অনলাইন থেকে আয় করা খুবই সহজ হয়ে দাঁড়িয়েছে, শুধুমাত্র বুদ্ধি খাটিয়ে পরিশ্রম দিয়ে কাজ করলেই অনলাইন থেকে আয় করা সম্ভব। তাই অনলাইনে ডলার ইনকাম করতে পুরো পোস্টটি ভালো করে পড়বেন।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

অর্ডিনারি বিডির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url