ভিডিও না বানিয়ে ইউটিউব থেকে ইনকাম করার সর্বশেষ সেরা ১০টি উপায় জেনে নিন

প্রিয় পাঠক আপনারা কি ভিডিও না বানিয়ে ইউটিউব থেকে ইনকাম করতে চাচ্ছেন। তাহলে একদম সঠিক জায়গাতেই এসেছেন। আমরা আজকের এই পোস্টটিতে ভিডিও না বানিয়ে ইউটিউব থেকে ইনকাম করার উপায় গুলো সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করার চেষ্টা করব। বর্তমানে ইউটিউবে ভিডিও না বানিয়েও ইনকাম করা সম্ভব যদি আপনি কিছু অবলম্বন করে কাজ করে যান।
ভিডিও না বানিয়ে ইউটিউব থেকে ইনকাম
আর্টিকেল সূচিপত্রঃপ্রিয় বন্ধুরা আপনারা যদি ভিডিও না বানিয়ে ইউটিউব থেকে ইনকাম করতে চান তাহলে অবশ্যই পোস্টটি শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত মনোযোগ সহকারে পড়তে থাকুন। কারণ আজকের পোস্টে ভিডিও না বানিয়ে ইউটিউব থেকে ইনকাম করার বিভিন্ন ধরনের উপায় তুলে ধরা হবে। যেগুলো পড়ে আপনারা ধারণা নিতে পারেন।

উপস্থাপনা

বর্তমানে সকলের প্রায় শর্টকাটে অনলাইনে ইনকাম করতে চায়। আর শর্টকাটে অনলাইন থেকে ইনকাম করার অন্যতম মাধ্যম হচ্ছে ইউটিউব।ইউটিউবে আপনারা বিভিন্ন ধরনের কাজ করার মাধ্যমে অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। আপনাদের মধ্যে অনেকেই আছে যারা ইউটিউবে ভিডিও না বানিয়ে টাকা ইনকাম করতে চায়। তাদের জন্যই আজকের এই পোস্টটি হতে যাচ্ছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। ইউটিউব ভিডিও না বানিয়ে কিভাবে আপনি অনলাইনে টাকা আয় করবেন সে সম্পর্কে পোস্টটিতে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে।

ভিডিও না বানিয়ে ইউটিউব থেকে ইনকাম করার উপায়

সারা বিশ্বের জন্য বিনোদনের জনপ্রিয় মাধ্যম হল ইউটিউব। এই ইউটিউবে মানুষ ভিডিও বানিয়ে অনেক টাকা ইনকাম করছে। তবে অনেকে মনে করে শুধু ভিডিও বানিয়ে ইনকাম করা যায়।আপনারা কি জানেন ভিডিও না বানিয়েও ইউটিউব থেকে ইনকাম করা যায়। ভিডিও তেমন না বানিয়ে ইউটিউব থেকে ইনকাম করার জন্য কিছু উপায় অবলম্বন করতে হবে। 
এজন্য আপনাদের আগেই প্রথমে ভিডিও না বানিয়ে ইউটিউব থেকে ইনকাম করার উপায় সম্পর্কে জেনে রাখতে হবে, তাহলে আপনারা সেই উপায় গুলো অবলম্বন করে ইউটিউব থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। তবে চলুন আর কথা না বাড়িয়ে ভিডিও না বানিয়ে ইউটিউব থেকে আয় করার উপায় জেনে নেই।
  • affiliate marketing করে ইনকাম
  • ভিডিও কনটেন্ট শেয়ার
  • লাইভ স্ট্রিমিং করে youtube থেকে ইনকাম
  • চ্যানেল ম্যানেজমেন্ট করে youtube থেকে ইনকাম
  • মিউজিক তৈরি করে ইনকাম
  • ট্রান্সলেট করে ইউটিউব থেকে ইনকাম
  • কপিরাইট ফ্রি ভিডিও আপলোড করে ইনকাম
  • স্ক্রিপ লিখে ইউটিউব থেকে ইনকাম
  • অ্যানিমেশন বানিয়ে ইউটিউব থেকে ইনকাম
  • ইউটিউবে টিউটোরিয়াল বানিয়ে ইনকাম
আপনারা চাইলে উপরের লিস্টে দেওয়া উপায় গুলো অবলম্বন করে ভিডিও না বানিয়ে ইউটিউব থেকে ইনকাম করতে পারেন। তাছাড়াও আপনারা চাইলে youtube এ শিক্ষকতা করার মাধ্যমে অনলাইন থেকে আয় করতে পারবেন। অনেকে আছে যারা যে কোন একটি বিষয় পারদর্শী হয়ে থাকে সেটি আপনি অনলাইনে ইউটিউবের মাধ্যমে কোর্স করাতে পারেন। চলুন উপায় গুলো সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক।

affiliate marketing করে ইনকাম

আপনারা চাইলে ইউটিউব চ্যানেলে ভিডিও না বানিয়ে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করার মাধ্যমে টাকা ইনকাম করতে পারেন। youtube এ কোন ধরনের ভিডিও কন্টেন্ট আপলোড না করে এফিলিয়েট লিংক শেয়ার করার মাধ্যমে টাকা আয় করা যায়। আপনি কোন কোম্পানির এফিলিয়েট প্রোগ্রামে জয়েন করে তাদের পণ্য মার্কেটিং করে ইনকাম করতে পারবেন।

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং মূলত হল কোন কোম্পানির পণ্য অনলাইনের মাধ্যমে বিক্রি করে দেওয়া। আপনি যদি কোন কোম্পানির পণ্য অনলাইন এর মাধ্যমে বিক্রি করে দিতে পারেন তাহলে সেই বিক্রি করার বিনিময়ে নির্দিষ্ট পরিমাণ কমিশন পেতে পারেন। এজন্য আপনাদের অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং সম্পর্কে সামান্য ধারণ রাখতে হবে। 
আপনার ইউটিউব চ্যানেলে অ্যাফিলিয়েট লিংক শেয়ার করেন সেখান থেকে কেউ যদি পণ্য ক্রয় করে তাহলে আপনি সেই পণ্য ক্রয় করার বিনিময়ে কোম্পানি থেকে কমিশন পাবেন। এভাবে অ্যাফিলিয়েট প্রোগ্রামে যোগদান করে আপনি ইউটিউব থেকে আয় করতে পারবেন। বর্তমানে যারা ইউটিউবে ভিডিও বানাচ্ছে না তারা প্রায় এই অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করেই ইউটিউব থেকে টাকা ইনকাম করছে।

ভিডিও কনটেন্ট শেয়ার করে ইউটিউব থেকে ইনকাম

ভিডিও কনটেন্ট শেয়ার করার মাধ্যমে ইউটিউব থেকে ইনকাম করা যায়। মূলত এখানে নিজের ইউটিউব চ্যানেলে অন্য কোন ইউটিউব চ্যানেলের ভিডিও শেয়ার করাকে বোঝায়। বর্তমানে ইউটিউব অন্যান্য কনটেন্ট ক্রিয়েটরদের ভিডিও কনটেন্ট নিজের চ্যানেলে আপলোড করার সুযোগ সুবিধা দিয়ে থাকে। তবে সেক্ষেত্রে কিছু নিয়ম নীতি মেনে ভিডিও কনটেন্ট আপলোড করতে হয়। 
এখানে আপনাকে নতুন করে ভিডিও বানাতে হচ্ছে না। তবে এখানে আপনাকে ভিডিওগুলো সামান্য এডিট করে আপলোড করতে হবে। বর্তমানে অনেক ইউটিউব চ্যানেল রয়েছে যারা নিজেদের চ্যানেলে অন্য ভিডিও আপলোড করে টাকা ইনকাম করছে। তারা মূলত aggregation পদ্ধতিতে ইউটিউব চ্যানেলে ভিডিও আপলোড করে টাকা আয় করছে। 

youtube এ এমন অনেক চ্যানেল রয়েছে যারা মুভি টেইলার গুলো বানিয়ে আপলোড করে থাকে। এক্ষেত্রে আপনারা বিভিন্ন মুভি কোম্পানির সাথে স্পন্সরশিপ করতে পারেন। তবে আমার মতে আপনারা যাদের কনটেন্ট শেয়ার করে আপলোড করবেন তাদের সাথে অবশ্যই যোগাযোগ করে করবেন। সেইসব ইউটিউব চ্যানেলে যদি পারমিশন দেয় তাহলে আপনি তাদের ইউটিউব ভিডিও শেয়ার করে আয় করতে পারবেন।

লাইভ স্ট্রিমিং করে youtube থেকে ইনকাম

ইউটিউবে লাইভ স্ট্রিম করেন মাধ্যমে ইউটিউব থেকে ইনকাম করা যায়। লাইভ স্ট্রিম করার জন্য তেমন কোন অভিজ্ঞতা ও দক্ষতার প্রয়োজন নেই। শুধুমাত্র আপনি যদি কোন বিষয়ে পারদর্শী হয়ে থাকেন সে বিষয়টি নিয়ে ইউটিউবে লাইভ স্ট্রিম করে ইনকাম করতে পারবেন। ধরুন আপনি গেম খেলতে ভালোবাসেন এবং গেমে পারদর্শী তাহলে আপনি ইউটিউবে গেমিং লাইভ স্ট্রিম করে টাকা আয় করতে পারবেন। 
তবে আপনাদের এক্ষেত্রে ইউটিউব চ্যানেল থাকতে হবে। তাছাড়া পাশাপাশি আপনারা বিভিন্ন ধরনের ভিডিও রেকর্ড করে সেগুলো লাইভ স্ট্রিম করতে পারেন। এবার ধরুন আপনার বাড়ির আশেপাশে কনসার্ট হচ্ছে, সেখানে আপনি গিয়ে কনসাটের লাইভ স্ট্রিম করলেন। এভাবে আপনি যেকোন বিষয়ে লাইভ স্ট্রিম করে youtube থেকে অতি সহজেই টাকা আয় করতে পারবেন।

চ্যানেল ম্যানেজমেন্ট করে youtube থেকে ইনকাম

আপনারা যদি ভিডিও না বানিয়ে youtube থেকে ইনকাম করতে চান তাহলে চ্যানেল ম্যানেজমেন্ট এর কাজ করতে পারেন। বর্তমানে অনেকেই রয়েছে যারা ইউটিউব চ্যানেল ম্যানেজমেন্ট করে ইউটিউব থেকে টাকা ইনকাম করছে। অনেক বড় বড় ইউটিউব চ্যানেল রয়েছে যারা সময়ের অভাবে তেমনভাবে চ্যানেল ম্যানেজমেন্ট করতে পারে না, এজন্য তারা ইউটিউব চ্যানেল ম্যানেজমেন্ট করার জন্য লোক নিয়োগ দিয়ে থাকে। 
ভিডিও না বানিয়ে ইউটিউব থেকে ইনকাম
আপনারা তাদের কথা মত অনুযায়ী ইউটিউব চ্যানেল ম্যানেজমেন্ট করবেন তাহলে মাসিক একটা বেতন পাবেন। ইউটিউব চ্যানেল ম্যানেজমেন্ট এর কাজ হল সঠিক সময় ভিডিও আপলোড করা , চ্যানেল কাস্টোমাইজেশন করা , ভিডিও থাম্বনেইল বানানো ইত্যাদি কাজগুলো করতে হয়। আপনারা ইউটিউব চ্যানেল ম্যানেজমেন্ট করার জন্য তাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন।

মিউজিক তৈরি করে ইনকাম

আপনাদের মধ্যে যারা গায়ক রয়েছেন তারা চাইলে ইউটিউবে গান গেয়ে অথবা মিউজিক বানিয়ে প্রচুর টাকা আয় করতে পারবেন। বর্তমানে অনেক গায়ক রয়েছে যারা ইউটিউবে মিউজিক বানিয়ে লক্ষ লক্ষ টাকা ইনকাম করেছে। তাছাড়া আপনি বিভিন্ন ধরনের মিউজিক টিউন তৈরি করতে পারেন এবং সেগুলো আপলোড করে ইউটিউব থেকে টাকা আয় করতে পারবেন। আপনি নিজের গান রেকর্ড করে ইউটিউব চ্যানেলে আপলোড করতে পারেন, 
এতে করে আপনার ভিডিও ভাইরাল হলে আপনার পরিচিতি বাড়বে এবং একসময় আপনি youtube থেকে প্রচুর টাকা ইনকাম করবেন। এজন্য আমি বলব যারা গান গাইতে পারেন তারা নিজেদের মিউজিক ভিডিও বানিয়ে ইউটিউবে আপলোড করুন। আর আপনি গানের ভিডিও আপলোড করার জন্য মিউজিক ভিডিও চ্যানেল তৈরি করবেন। যেখানে শুধুমাত্র মিউজিক ভিডিও কনটেন্ট থাকবে।

ট্রান্সলেট করে ইউটিউব থেকে ইনকাম

ভিডিও না বানিয়ে ইউটিউব থেকে ইনকাম করার সবচেয়ে সহজ মাধ্যম হলো অনুবাদ করে ইনকাম। আপনি ইউটিউব চ্যানেলের ভিডিও অনুবাদ করে বা ট্রান্সলেট করে সেই ভিডিও আপলোড করে আয় করতে পারবেন। ধরুন আপনি ইংরেজি বিষয়ে পারদর্শী এবং ইংরেজি ভাষা আপনি ভালো বোঝেন। যার ফলে আপনি ইংরেজি থেকে বাংলা অনুবাদ করতে পারেন। বর্তমানে ইউটিউবে অসংখ্য জনপ্রিয় ভিডিও রয়েছে যেগুলো মূলত ইংলিশ ভাষাতে রয়েছে। 

আপনি সেই ভিডিওগুলো বাংলা অনুবাদ করে বাংলাভাষী দর্শকদের কাছে পৌঁছাতে পারেন। মূলত আপনি ইংলিশ ভিডিওগুলো বাংলাতে অনুবাদ করে ইউটিউব চ্যানেলে আপলোড করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। বর্তমানে এভাবে অনুবাদ করে অনেক ইউটিউব কনটেন্ট ক্রিয়েটর প্রচুর অর্থ উপার্জন করছে।

কপিরাইট ফ্রি ভিডিও আপলোড করে ইনকাম

আপনারা চাইলে কপিরাইট ফ্রি ভিডিও আপলোড করে ইউটিউব থেকে ইনকাম করতে পারবেন। বর্তমানে অনেক ওয়েবসাইট রয়েছে যেখানে কপিরাইট ফ্রি ভিডিও পাওয়া যায়। কপিরাইট ফ্রি ভিডিওতে মিউজিক ভিডিও, গেমিং ভিডিও ও আরো বিভিন্ন ধরনের ভিডিও রয়েছে। এই ভিডিওগুলো আপনারা ইউটিউব প্লাটফর্মে আপলোড করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। 

তাছাড়া আপনারা মিউজিকের জন্য কপিরাইট ফ্রি মিউজিক ব্যবহার করতে পারেন। বর্তমানে অনেক কপিরাইট ফ্রি মিউজিক ওয়েবসাইট রয়েছে যেখান থেকে ফ্রিতেই কপিরাইট ফ্রি মিউজিক ডাউনলোড করা যায়। আর এই মিউজিক গুলো ইউটিউবে ব্যবহার করলে কোন ধরনের সমস্যা হয় না। 

আপনারা Pexels,Pixabay,Videvo,Adobe Stock,Sutterstock এই ওয়েবসাইট গুলো থেকে কপিরাইট ফ্রি ভিডিও ডাউনলোড করে কনটেন্ট বানিয়ে ইউটিউবে আপলোড করতে পারেন। এক্ষেত্রে আপনি অবশ্যই ভিডিওগুলো কপিরাইট ফ্রি কিনা সেগুলো চেক করে নিবেন। তাহলে বুঝতে পারছেন এভাবে কপিরাইট ফ্রি ও স্টক ভিডিও আপলোড করে ইউটিউব থেকে আয় করা সম্ভব।

স্ক্রিপ লিখে ইউটিউব থেকে ইনকাম

একটি পরিপূর্ণ সম্পন্ন ভিডিও বানানোর জন্য অবশ্যই স্ক্রিপ্ট এর প্রয়োজন হয়। স্ক্রিপ্ট ছাড়া ভালো ভিডিও বানানো সম্ভব নয়। আপনি যদি ভাল স্ক্রিপ্ট লিখতে পারেন তাহলে সেগুলো আপনি কন্টেন্ট ক্রিয়েটর এর সাথে শেয়ার করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। মূলত আপনি স্ক্রিপ্ট লেখার কাজ করে ইউটিউব থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। 

অনেক চ্যানেল রয়েছে যারা ভিডিও বানানোর জন্য স্ক্রিপ্ট রাইটার নিয়োগ দিয়ে থাকে। আপনি তাদের সাথে কাজ করতে পারেন। ভিডিওর স্ক্রিপ্ট যদি সুন্দর হয় তাহলে সেটি দর্শকদের কাছে জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। এজন্য আপনি ভালো স্ক্রিপ্ট লিখতে জানলে সে দক্ষতাকে কাজে লাগিয়ে ইউটিউব থেকে টাকা আয় করতে পারবেন।

অ্যানিমেশন বানিয়ে ইউটিউব থেকে ইনকাম

বর্তমান সময়ে মানুষজন ইউটিউব বা ফেসবুকে অ্যানিমেশন ভিডিও বানিয়ে প্রচুর টাকা ইনকাম করে যাচ্ছে। আপনারাও চাইলে বিভিন্ন সফটওয়্যার ওয়েবসাইটের সাহায্য নিয়ে এনিমেশন ভিডিও বানিয়ে ইউটিউবে আপলোড করতে পারেন। বর্তমানে এনিমেশন ভিডিওর প্রচুর চাহিদা থাকার কারণে আপনি যদি এই ভিডিও বানায় তাহলে অনেক ভিজিটর পেতে পারেন। 

বিশেষ করে কার্টুন এডমিশন ভিডিও বানালে অনেক ভিউজ পাওয়া যায়। এনিমেশন ভিডিও বানানোর জন্য আপনি সফটওয়্যার বা ওয়েবসাইট ব্যবহার করতে পারেন। ফ্রিতে এনিমেশন ভিডিও বানানো যায় এমন অনেক সফটওয়্যার বা ওয়েবসাইট রয়েছে। সেগুলোর সাহায্যে ভিডিও বানিয়ে ইউটিউবে আপলোড করে টাকা ইনকাম করা সম্ভব।

ইউটিউবে টিউটোরিয়াল বানিয়ে ইনকাম

আপনারা চাইলে ইউটিউবে বিভিন্ন কোম্পানির প্রোডাক্ট এর শর্ট রিভিউ বানিয়ে টাকা ইনকাম করতে পারেন। বর্তমানে অনেক কোম্পানি রয়েছে যারা তাদের প্রোডাক্ট বিক্রি করার জন্য রিভিউ বানিয়ে থাকে। আপনি তাদের প্রোডাক্টের শর্ট রিভিউ বানিয়ে টাকা ইনকাম করতে পারেন। তাছাড়াও বিভিন্ন মোবাইল ফোন অথবা ডিভাইসের রিভিউ করার মাধ্যমে ইউটিউব থেকে টাকা ইনকাম করতে পারেন। 

এসব ধরনের রিভিউ করতে কোন ধরনের দক্ষতার প্রয়োজন হয় না। শুধুমাত্র বুদ্ধি খাটিয়ে কাজ করতে হয়। এভাবে আপনি ইউটিউবে টিউটোরিয়াল ভিডিও বানিয়ে ইনকাম করতে পারবেন। আপনারা বিভিন্ন বিষয়ে টিউটোরিয়াল বানাতে পারেন। সবচেয়ে ভালো হয় তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক ও গ্যাজেট নিয়ে টিউটোরিয়াল বানানো।

ইউটিউব থেকে আয় করার উপায়

ইউটিউব থেকে আয় করা অন্যতম উপায় হল ভিডিও কনটেন্ট তৈরি করা। আপনি যদি ভালো মানসম্মত ভিডিও কনটেন্ট তৈরি করতে পারেন তাহলে youtube থেকে প্রচুর টাকা ইনকাম করতে পারবেন। তবে আপনার ভিডিওর কোয়ালিটি ভালো হতে হবে। ভিডিও কনটেন্ট গুলো অবশ্যই ইউনিক এবং সৃজনশীল টাইপের হতে হবে। কারণ বর্তমানে প্রায় সকলেই একই ধরনের ভিডিও বানিয়ে থাকে যার কারণে সহজে ভিজিটর পাওয়া যায় না। 

তাই আপনারা সৃজনশীল অর্থাৎ নতুন টাইপের ভিডিও বানিয়ে ইউটিউবে আপলোড করলে দ্রুত ভিজিটর পাবেন এবং সাবস্ক্রাইবার বাড়লে মনিটাইজেশনের জন্য এপ্লাই করতে পারেন। তাছাড়া আরো অনেকভাবে ইউটিউব থেকে টাকা ইনকাম করা যায়। আমরা ইতিমধ্যেই ভিডিও না বানিয়ে ইউটিউব থেকে ইনকাম করার উপায় গুলো তুলে ধরেছি। আপনি সেটি পড়ে নিবেন তাহলে বুঝবেন ইউটিউব থেকে ভিডিও না বানিয়ে ইনকাম করা সম্ভব। 

আপনারা চাইলে ইউটিউবে রিলিস ভিডিও বানিয়ে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।রিলিস ভিডিওগুলো সাধারণত 60 সেকেন্ডের হয়ে থাকে। এ ধরনের শর্ট ভিডিও বানাতে তেমন কোন অভিজ্ঞতার প্রয়োজন নেই। আপনি যে কোন উপায়ে রিলিস ভিডিও বানাতে পারেন। তাছাড়াও আরো অনেক ধরনের উপায় রয়েছে যার মাধ্যমে ইউটিউব থেকে টাকা আয় করা যায়। সেই উপায়গুলো আমরা পরের পোস্টগুলোতে আলোচনা করব।

ভিডিও না বানিয়ে ইউটিউব থেকে ইনকামঃ(FAQs)

ভিডিও না করে কিভাবে ইউটিউব থেকে আয় করা যায়?
আপনারা ফ্রি কপিরাইট ভিডিও আপলোড করে অথবা ইউটিউব এর পার্টনার প্রোগ্রামে যোগদান করে কোন ভিডিও না বানিয়ে ইউটিউব থেকে ইনকাম করতে পারেন। তাছাড়াও অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে ভিডিও না বানিয়ে ইউটিউব থেকে আয় করা যায়।

ইউটিউবে মুভি আপলোড করে টাকা আয় করা যায়?
নিজের বানানো মুভি আপলোড করে টাকা আয় করা যায়। তবে আপনি অন্যজনের মুভি সরাসরি আপলোড করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন না। কিন্তু মুভির ছোট ছোট ক্লিপগুলো এডিট করে আপলোড করে টাকা আয় করতে পারবেন।

ইউটিউব থেকে কত টাকা আয় করা যায়?
ইউটিউব থেকে আপনি কমপক্ষে ২০ থেকে ৩০ হাজার টাকা আয় করতে পারবেন। যদি আপনার ভিডিও কনটেন্ট জনপ্রিয় হয়ে থাকে তাহলে মাসে ১ লক্ষ টাকার বেশি আয় করতে পারবেন। তাছাড়াও ইউটিউবাররা ভিডিওতে ভিউজ এর জন্য টাকা ইনকাম করে থাকে। আর ভিডিওর ইনকামের রেট দেশ অনুযায়ী বিভিন্ন রকম হয়ে থাকে। সে ক্ষেত্রে সঠিকভাবে youtube থেকে ইনকাম কত করা যায় তা বলা সম্ভব নয়।

শেষ কথা

আশা করছি আপনারা আজকের এই সম্পূর্ণ পোস্টটিতে ভিডিও না বানিয়ে ইউটিউব থেকে ইনকাম করার সকল উপায় গুলো সম্পর্কে জেনে গেছেন। তাছাড়া youtube থেকে কিভাবে আপনি ইনকাম করবেন সেই উপায় গুলো তুলে ধরা হয়েছে। মূলত ইনকাম করার জন্য অবশ্যই পরিশ্রম ও ধৈর্য সহকারে কাজ করে যেতে হবে। আপনি যদি ধৈর্য সহকারে কাজ করে যান তাহলে একদিন অবশ্যই সফলতা অর্জন করবেন। 

তা আমরা বলব ইউটিউব থেকে ইনকাম করার জন্য অবশ্যই ধৈর্য সহকারে এবং পরিশ্রম দিয়ে কাজ করবেন। একবার আপনি ইনকাম করা শুরু করে দিলে আস্তে আস্তে আপনার ইনকাম বেড়ে যাবে এবং প্রচুর টাকা আয় করতে পারবেন। আর ভিডিও না বানিয়ে কিভাবে ইনকাম করবেন সেজন্য পোস্টটি সম্পূর্ণ পড়ুন।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

অর্ডিনারি বিডির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url