প্রতিদিন ফ্রি টাকা ইনকাম করুন বিকাশে পেমেন্ট নিন ও ২৪০ টাকা ফ্রী বিকাশ পেমেন্ট 2024

প্রিয় বন্ধুরা আপনার নিশ্চয়ই ফ্রি টাকা ইনকাম বিকাশে পেমেন্ট নেওয়ার উপায় গুলো জানতেই আজকের পোস্টটিতে এসেছেন। তবে আপনারা চিন্তিত হবেন না , কারণ আজকের এই আর্টিকেলটিতে ফ্রি টাকা ইনকাম বিকাশে পেমেন্ট ও ২৪০ টাকা ফ্রী বিকাশ পেমেন্ট সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা তুলে ধরা হবে।
ফ্রি টাকা ইনকাম বিকাশে পেমেন্ট
আর্টিকেল সূচিপত্রঃবর্তমানে ফ্রি টাকা ইনকাম করার বিভিন্ন ধরনের অ্যাপস রয়েছে, যেগুলোতে কাজ করে ফ্রি টাকা ইনকাম করে বিকাশে পেমেন্ট নেওয়া যায়। আমরা আজকের এই পোস্টটিতে আপনাদের সুবিধার্থে ফ্রি টাকা ইনকাম বিকাশে পেমেন্ট নেওয়ার উপায় গুলো তুলে ধরার চেষ্টা করব।

উপস্থাপনা

বর্তমানে এই আধুনিক যুগে টাকা ইনকাম করার বিভিন্ন ধরনের পদ্ধতি রয়েছে। আপনারা যদি এই পদ্ধতি গুলো না জেনে থাকেন তাহলে অনলাইন থেকে সহজেই ফ্রি টাকা ইনকাম করতে পারবেন না। অনলাইন থেকে ফ্রি টাকা ইনকাম করার জন্য বিভিন্ন ধরনের উপায় রয়েছে, আর সেই উপায়গুলো আমরা আজকের এই পোস্টটিতে তুলে ধরার চেষ্টা করব। 

আপনারা ফ্রি টাকা ইনকাম করার উপায় গুলো জেনে সঠিক নিয়ম মেনে কাজ করলে টাকা আয় করতে পারবেন। তাই আপনারা অবশ্যই ফ্রি টাকা ইনকাম বিকাশ পেমেন্ট নেওয়ার উপায় গুলো ভালোভাবে পড়বেন। আপনার যদি সামান্য কিছু অভিজ্ঞতা বা দক্ষতা থেকে থাকে তাহলে আপনি ফ্রিল্যান্সিং করার মাধ্যমেও ফ্রি টাকা ইনকাম করতে পারবেন এবং সেটি বিকাশে পেমেন্ট নিতে পারবেন। 
এর পাশাপাশি বর্তমানে বাংলাদেশে বিভিন্ন ধরনের অ্যাপস বের হয়েছে যেখানে কাজ সম্পন্ন করার মাধ্যমে ফ্রি টাকা ইনকাম করা যায়। আর সেই টাকা গুলো আপনি বিকাশে বা নগদে পেমেন্ট নিতে পারবেন। চলুন আর কথা না বাড়িয়ে আজকের এই পুরো পোস্টটিতে ফ্রি টাকা ইনকাম করার বিভিন্ন উপায়গুলো আলোচনা করা যাক।

ফ্রি টাকা ইনকাম বিকাশে পেমেন্ট

ফ্রি টাকা ইনকাম করে বিকাশে পেমেন্ট নেওয়ার জন্য আপনি বিভিন্ন ওয়েবসাইটে বা মার্কেট প্লেসে ছোট ছোট কাজ করতে পারেন। এই ছোট ছোট সহজ কাজ করার মাধ্যমে আপনি ফ্রি টাকা ইনকাম করতে পারবেন। এই কাজগুলো করার জন্য তেমন সময়ে এর দরকার হবে না। তবে আপনাদের ফ্রি টাকা ইনকাম করার জন্য উপায় গুলো সম্পর্কে জেনে রাখতে হবে। 
তাই আমরা আজকের এই অংশে ফ্রী টাকা ইনকাম বিকাশে পেমেন্ট সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করব। ফ্রি টাকা ইনকাম করার বিভিন্ন apps রয়েছে, সেই অ্যাপসগুলোতে আপনি কাজ করে প্রতিদিন ৩০০ থেকে ৪০০ টাকা ফ্রি ইনকাম করে বিকাশে পেমেন্ট নিতে পারবেন। চলুন আর কথা না বাড়িয়ে ফ্রি টাকা ইনকাম বিকাশে পেমেন্ট নেওয়ার উপায় গুলো জেনে নেই।
  • Work up job
  • Swagbucks
  • UserTesting
  • Freelancer
  • Fiverr
  • Don Apps
  • Applause
  • Upwork
  • Quize Khelo
  • Survimo
আপনারা উপরে দেখানো ওয়েবসাইট বা এপ্স গুলো থেকে অনলাইন এর মাধ্যমে ফ্রি টাকা ইনকাম বিকাশে পেমেন্ট নিতে পারবেন। এই ওয়েবসাইট বা এপ্স গুলোতে ছোট ছোট কাজ করার মাধ্যমে টাকা আয় করা যায়। এখান থেকে আপনি প্রতিদিন অন্তত ২০০ থেকে ৩০০ টাকা আয় করতে পারবেন। 
তবে আপনি ধৈর্য ও পরিশ্রম দিয়ে যদি কাজ করে থাকেন তাহলে খুব সহজেই ৪০০ থেকে ৫০০ টাকা আয় করতে পারবেন। তাই সকলেই ভালোভাবে জেনে বুঝে কাজ করার চেষ্টা করবেন, তাহলে আপনি এখান থেকে ভালো টাকা ইনকাম করতে পারবেন। তবে চলুন ওয়েবসাইট গুলো সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেই।

Work up job থেকে ইনকাম

বর্তমানে ফ্রি ইনকাম করার অন্যতম অ্যাপস বা ওয়েবসাইট হলো Work up job । আপনারা এখানে বিভিন্ন ধরনের টাক্স কমপ্লিট করে টাকা আয় করতে পারবেন। এই ওয়েবসাইট থেকে ইনকাম করার জন্য আপনি প্রথমে গুগল প্লে স্টোর থেকে অ্যাপ্লিকেশনটি ডাউনলোড করতে পারেন। তাছাড়া তাদের ওয়েবসাইট রয়েছে, তাদের ওয়েবসাইটে প্রবেশ করার জন্য  Work up job লিখে সার্চ করবেন। তারপর ওয়েবসাইটে প্রবেশ করার পর আপনি একটি একাউন্ট তৈরি করে রেজিস্টার করে নিবেন। 
রেজিস্টার করা হয়ে গেলে লগইন অপশনটিতে একাউন্ট লগইন করবেন। এরপরই আপনি এখানে বিভিন্ন ধরনের কাজ করার অপশন দেখতে পাবেন। তবে এখানে আপনি একাউন্ট রেজিস্টার করার সাথে সাথে কাজ করতে পারবেন না। আপনাকে প্রথমেই আপনার একাউন্টটি ভেরিফাই করতে হবে। জিমেইল দিয়ে ভেরিফিকেশন কমপ্লিট করার পর একাউন্ট একটিভ করতে হবে। আর আপনি সর্বপ্রথম ২০০ টাকা দিয়ে একাউন্ট করে নিতে পারবেন। 

সেই ২০০ টাকা আপনার একাউন্টে জমা থাকবে। একাউন্টটি একটিভ না করলে আপনি কাজ করতে পারবেন না। অ্যাকাউন্ট একটিভ করা হয়ে গেলে আনমানি নামে অপশন পাবেন, সেখানে ক্লিক করে বিভিন্ন ধরনের কাজের আরো অনেক অপশন দেখতে পাবেন। আপনার পছন্দমত কাজগুলো সিলেক্ট করে করতে পারবেন। এখানে আপনি সার্ভে করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। 
তাছাড়াও ইউটিউব সাবস্ক্রাইব , ভিডিও দেখা , ইউটিউব এ কমেন্ট ও লাইক , ওয়েবসাইট ভিজিট , সাইট রিভিউ , অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড সহ বিভিন্ন ধরনের কাজ করতে পারবেন। এছাড়া আরো অনেক কাজ রয়েছে যেগুলো করার মাধ্যমে ফ্রি টাকা ইনকাম করা সম্ভব। আপনারা এই ধরনের ছোট ছোট কাজ করার মাধ্যমে ঘরে বসে অনলাইনে ফ্রি টাকা ইনকাম বিকাশে পেমেন্ট নিতে পারবেন। আপনার একাউন্টে পর্যাপ্ত পরিমাণ ডলার জমা হলে সেটি আপনি বিকাশ অথবা নগদেব পেমেন্ট নিয়ে নিতে পারবেন।

Swagbucks থেকে ফ্রি টাকা ইনকাম

আপনারা এই ওয়েবসাইটটিতে বিভিন্ন ধরনের কাজ করার মাধ্যমে টাকা আয় করতে পারবেন। এই ওয়েবসাইটে সার্ভে করে টাকা ইনকাম করা যায়। তাছাড়াও গেম খেলার সুযোগ রয়েছে, এখানে ছোট ছোট গেম খেলে ও টাক্স কমপ্লিট করে অর্থ উপার্জন করা যায়। এই ওয়েবসাইটে কাজ করার জন্য প্রথমে আপনি ক্রোম ব্রাউজারে গিয়ে Swagbucks লিখে সার্চ করে ওয়েবসাইটটিতে প্রবেশ করবেন। 

তারপর ওয়েবসাইটে একটি অ্যাকাউন্ট তৈরি করে নিবেন। একাউন্ট তৈরি করা হয়ে গেলে আপনি কাজ করার জন্য বিভিন্ন ধরনের অপশন পাবেন। বিভিন্ন ধরনের কাজ করে আপনার একাউন্টে নির্দিষ্ট পরিমাণ ডলার জমা হয়ে গেলে সেটি আপনি গিফট কার্ড অথবা ডলারে পেমেন্ট নিতে পারবেন। আর সেই ডলার ভাঙ্গিয়ে আপনি বিকাশে পেমেন্ট নিতে পারবেন। 
বর্তমান বিশ্বে এই ওয়েবসাইটটি খুবই জনপ্রিয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। কারণ এটি একটি ট্রাস্টেড ওয়েবসাইট, পেমেন্ট খুব সহজেই পাওয়া যায়। তাই আপনারা প্রতিদিন ৩০০ থেকে ৪০০ টাকা ফ্রি ইনকাম করার জন্য এই ওয়েবসাইটটিতে কাজ করতে পারেন। আপনি যদি ধৈর্য ধরে কাজ করে যান তাহলে অনেক টাকা পর্যন্ত আয় করতে পারবেন।

UserTesting থেকে টাকা আয় করার উপায়

আপনারা UserTesting এই ওয়েবসাইটটিতে বিভিন্ন ধরনের অ্যাপস টেস্ট করার মাধ্যমে টাকায় করতে পারবেন। বর্তমানে অনেক কোম্পানি রয়েছে যারা তাদের নিজস্ব অ্যাপস বানিয়ে থাকে। তাদের অ্যাপস ঠিকমতো কাজ করছে কিনা তা পরীক্ষা করার জন্য বিভিন্ন ধরনের টাক্স দিয়ে থাকে। আপনারা তাদের সেই টাস্কগুলো কমপ্লিট করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। 

তাদের বানানো এপ্স গুলোতে কোন সমস্যা রয়েছে কিনা অথবা কেমন সার্ভিস দিচ্ছে এগুলো পরীক্ষা করে রিভিউ দিতে হয়। মূলত আপনাকে অ্যাপসগুলো ব্যবহার করে টেস্ট করতে হবে। এমন অনেক কোম্পানি রয়েছে তাদের অ্যাপসগুলো টেস্ট করার জন্য লোক নিয়োগ দিয়ে থাকে। আপনারা তাদের সাথে কাজ করতে পারেন। এভাবে আপনি কিছু টাস্ক কমপ্লিট করেই ফ্রি টাকা ইনকাম করে নিতে পারবেন।

Freelancer মার্কেটপ্লেস থেকে টাকা ইনকাম

এটি একটি ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস। আপনার যদি ফ্রিল্যান্সিংয়ের যেকোন কাজের সামান্য দক্ষতা থেকে থাকে তাহলে আপনি এই মার্কেটপ্লেস থেকে বিভিন্ন ধরনের কাজ করে অতি সহজেই মাসে ২০ থেকে ৩০ হাজার টাকা আয় করতে পারবেন। আপনার স্কিল থাকলে সেই স্কিল কাজে লাগিয়ে আপনি এই মার্কেটপ্লেস থেকে ফ্রিতে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। এখানে আপনার কোন টাকা খরচ করতে হচ্ছে না। শুধুমাত্র আপনার এই ওয়েবসাইটটিতে একটি একাউন্ট খুলতে হবে। 
তারপর আপনি যোগ্যতা অনুযায়ী বিদেশী ক্লায়েন্টদের কাজ করে দেওয়ার মাধ্যমে প্রতিদিন 10 থেকে 15 ডলার আয় করতে পারবেন। এই মার্কেটপ্লেসে ফ্রিল্যান্সিং সম্পর্কিত অনেক ধরনের কাজ করতে পারবেন। তাই আপনার যদি দক্ষতা থেকে থাকে তাহলে আপনি এই মার্কেটপ্লেস থেকে ছোট ছোট কাজ করে টাকা আয় করতে পারবেন।

Fiverr থেকে টাকা ইনকাম করার উপায়

ফাইবার ও একটি ফ্রিল্যান্সিং ওয়েবসাইট। এই ওয়েবসাইট আপনি বিভিন্ন ফ্রিল্যান্সিং কাজ করার মাধ্যমে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন। আপনার ফিন্যান্সিংয়ের যে কোন কাজে অভিজ্ঞতা বা দক্ষতা থাকলে সেই কাজগুলো করার মাধ্যমে প্রচুর টাকা আয় করতে পারবেন।ফ্রিল্যান্সিং করে অনলাইনে ঘরে বসে খুব সহজেই ফ্রি টাকা ইনকাম করা যায়।

আপনার শুধু একটি কম্পিউটার বা মোবাইল ফোন থাকতে হবে। তার সাথে ভালো মানের ইন্টারনেট সংযোগ এর প্রয়োজন হবে। আর আপনি ফ্রিল্যান্সিংয়ের যে কোন কাজগুলো করে সহজেই অনলাইনে ঘরে বসে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন। ফ্রিল্যান্সিং কাজগুলো আপনি ইউটিউব অথবা বিভিন্ন কোর্স করে শিখতে পারেন।

Don Apps থেকে ফ্রি টাকা ইনকাম

আপনারা এই অ্যাপসটি গুগল প্লে স্টোরে পেয়ে যাবেন। গুগল প্লে স্টোরে গিয়ে অ্যাপসটির নাম লিখে সার্চ করে ডাউনলোড করে নিবেন। অ্যাপ্লিকেশনটি ইন্সটল হয়ে গেলে একাউন্ট রেজিস্টার করে নিবেন। আর অ্যাকাউন্ট রেজিস্টার করলেই সাথে সাথে আপনি ফ্রি ১৫ টাকা পেয়ে যাবেন। 

তারপর আপনি অ্যাপ এর ভেতর বিভিন্ন ধরনের কাজ কমপ্লিট করে টাকা আয় করতে পারবেন। এই অ্যাপসটিতে আপনি কুইজ খেলে , গেম খেলে , সার্ভে করে , এড দেখে টাকা আয় করতে পারেন। তাছাড়া আরো ছোটখাটো বিভিন্ন ধরনের কাজ রয়েছে যেগুলো করার মাধ্যমে প্রতিদিন ৩০০ টাকা আয় করতে পারবেন। আর আপনি টাকাগুলো বিকাশে পেমেন্ট নিতে পারবেন। 

Applause থেকে ফ্রি টাকা ইনকাম

এই ওয়েবসাইটে আপনি বিভিন্ন ধরনের অ্যাপ টেস্ট অথবা অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করার মাধ্যমে টাকা আয় করতে পারবেন। কোম্পানিগুলো তাদের এপ্লিকেশন প্রচারণা করার জন্য এড দিয়ে থাকে। আপনারা তাদের এপ্লিকেশন গুলো ডাউনলোড করে ব্যবহার করে টাকা আয় করতে পারবেন। 
মূলত তাদের অ্যাপসগুলো ব্যবহার করে টাকা ইনকাম করতে পারেন। তাদের এপ্সে দেওয়া আনুষাঙ্গিক কাজ কমপ্লিট করে টাকা আয় করতে পারবেন। আর নির্দিষ্ট পয়েন্ট জমা হয়ে গেলে আপনি সেই পয়েন্টগুলো টাকাতে কনভার্ট করে বিকাশে পেমেন্ট নিতে পারবেন।

Upwork মার্কেটপ্লেস থেকে টাকা ইনকাম

এখানে আপনি বিভিন্ন ধরনের ফ্রিল্যান্সিং কাজ করতে পারবেন। যদি আপনি আর্টিকেল রাইটিং জেনে থাকেন তাহলে সেই আর্টিকেল রাইটিং আপনি এই মার্কেটপ্লেসে সেল করে টাকা আয় করতে পারবেন। এই মার্কেটপ্লেসে বিভিন্ন বায়াররা কাজের জন্য অফার করে থাকে। আপনি তাদের কাজ করে দেওয়ার মাধ্যমে নির্দিষ্ট অ্যামাউন্ট এর টাকা চার্জ করতে পারেন। 

তাদের কাজ আপনি ভালোভাবে করে দিতে পারলে তারা আপনাকে নির্দিষ্ট অ্যামাউন্ট পেমেন্ট করবে। ধরুন আপনি ডিজিটাল মার্কেটিং জানেন, তাহলে আপনি এই মার্কেটপ্লেসে ডিজিটাল মার্কেটিং এর সার্ভিস দিতে পারেন। ডিজিটাল মার্কেটিং সার্ভিস দেওয়ার মাধ্যমে খুব সহজে অনলাইনে ঘরে বসে টাকা আয় করা যায়। বর্তমানে অনেক কোম্পানি তাদের পণ্য প্রচার করার জন্য ডিজিটাল মার্কেটার নিয়োগ দিয়ে থাকে। 

আপনি ডিজিটাল মার্কেটিং এক্সপার্ট হয়ে থাকলে সেই কোম্পানিগুলোর সাথে যোগাযোগ করে তাদের কাজ করে দিয়ে ভালো একটা অ্যামাউন্ট ইনকাম করতে পারবেন। এভাবে এই মার্কেটপ্লেস বিভিন্ন ধরনের কাজ করার মাধ্যমে টাকা ইনকাম করা সম্ভব। আর এ ধরনের কাজগুলো করার জন্য অভিজ্ঞতা ও দক্ষতার প্রয়োজন হয়, তবে এখানে যেহেতু আপনাকে টাকা ইনভেস্ট করতে হচ্ছে না, তাহলে এখান থেকে ইনকাম আপনার ফ্রি টাকা ইনকাম হবে।

Quize Khelo অ্যাপ থেকে ফ্রি টাকা ইনকাম

আপনারা এই কুইজ খেলো থেকে প্রতিদিন ৪০০ থেকে ৫০০ টাকা আয় করতে পারবেন। এই অ্যাপটি গুগল প্লে স্টোরে পাওয়া যায়। আপনি অ্যাপসটির নাম লিখে সার্চ করবেন এবং ইন্সটল করবেন। তারপর অ্যাকাউন্ট রেজিস্টার করে কাজ করা শুরু করে দিবেন। এখানে মূলত আপনি কুইজ খেলার মাধ্যমে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। তাছাড়া অ্যাড দেখে অথবা গেম খেলার মাধ্যমে টাকা আয় করা যায়। গুগল প্লে স্টোরে থেকে ডাউনলোড করার জন্য Quize Khelo লিখে সার্চ করুন।
Quize Khelo
ডাউনলোড করা হয়ে গেলে রেজিস্ট্রেশন করা শেষে কাজ করে বিকাশে পেমেন্ট নিয়ে নিন। এখানে আপনি ভিডিও দেখেও টাকা আয় করতে পারবেন। কারণ এই অ্যাপ্লিকেশনটিতে ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম করার অপশন রয়েছে। ছোট ছোট শট ভিডিও দেখার মাধ্যমে আপনি এখান থেকে টাকা আয় করতে পারবেন। তাই আপনারা যদি ফ্রি টাকা ইনকাম বিকাশে পেমেন্ট নিতে চান তাহলে এই অ্যাপসটিতে কাজ করতে পারেন।

Survimo থেকে ফ্রি টাকা ইনকাম

আপনি এই Survimo ওয়েবসাইট থেকে ফ্রিতে সার্ভে করে টাকা আয় করতে পারবেন। এর পাশাপাশি এখান থেকে কুইজ খেলার মাধ্যমে টাকা আয় করা যায়। মূলত এই ওয়েবসাইটটিতে সার্ভে করার মাধ্যমেই টাকা আয় করা যায়। তবে আপনি এখান থেকে যদি বেশি টাকা ইনকাম করতে চান তাহলে অবশ্য আপনাকে পেইড সার্ভে করতে হবে। আর পেইড সার্ভে করার জন্য প্রথম দিকে টাকা দিতে হয়। তবে আপনারা চাইলে ফ্রিতেই সার্ভে করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। এজন্য আপনি ওয়েবসাইটটিতে একাউন্ট রেজিস্টার করবেন। 
Survimo
তারপর থেকে আপনি সার্ভে করে ফ্রি টাকা ইনকাম করে বিকাশে পেমেন্ট নিয়ে নিন। আপনারা যারা সার্ভে করতে ভালোবাসেন তাদের জন্য এই ওয়েবসাইটটি বেস্ট, কারণ এখানে সার্ভে করে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন। ওয়েবসাইটটি খুঁজে পাওয়ার জন্য গুগল ক্রোম ব্রাউজারে Survimo লিখে সার্চ করবেন, তাহলে সর্বপ্রথম আপনার সামনে ওয়েবসাইটটি শো করবে। এরপর ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে ফ্রিতে টাকা ইনকাম করার জন্য কাজ করা শুরু করে দিন।

ডেইলি ৫০০ টাকা ইনকাম

আপনি যদি ডেইলি ৫০০ টাকা আয় করতে চান তাহলে ডাটা এন্ট্রির কাজ করতে পারেন। বর্তমানে ফ্রিল্যান্সিং সেক্টরে ডাটা এন্টির কাজটি খুবই সহজ। আর এই কাজটি বর্তমানে অধিক জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। আজকাল বড় বড় কোম্পানিগুলো তাদের ডাটা পরিচালনা করার জন্য ডাটা এন্ট্রি কাজের জন্য লোক নিয়োগ দিয়ে থাকে। 

তাদের প্রতিদিন ডাটা এন্টির কাজের প্রয়োজন হয়, যার কারণে তারা ডাটা এন্টি কাজের জন্য ডাটা এন্ট্রি এক্সপার্ট নিয়োগ দিয়ে থাকে। ডাটা এন্টি কাজের জন্য তেমন কোন যোগ্যতা বা দক্ষতার প্রয়োজন হয় না। শুধুমাত্র আপনার একটি কম্পিউটার বা মোবাইল ফোন হলেই হবে, এর সাথে অবশ্যই ইন্টারনেট সংযোগ থাকতে হবে। 
আর আপনি যদি দ্রুত টাইপিং করতে পারেন তাহলে অবশ্যই আপনি ডাটা এন্ট্রি করে অনেক টাকা আয় করতে পারবেন। ডাটা এন্ট্রি কাজ করার জন্য আপনি ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে খোঁজ নিবেন, সেখানে বিভিন্ন কোম্পানি ও বিদেশি ক্লায়েন্টরা ডাটা এন্টি কাজের জন্য বিজ্ঞাপন দিয়ে থাকে। তাই সর্বশেষে বলা যায় আপনার যদি কম্পিউটারে সামান্য দক্ষতা ও টাইপিং স্পিড ভালো থাকে তাহলে আপনি এই ডাটা এন্ট্রি কাজ করে খুব সহজেই দৈনিক ৫০০ টাকা আয় করতে পারবেন।

মোবাইল দিয়ে টাকা আয় বিকাশে পেমেন্ট

বর্তমানে শিক্ষার্থীরা খুব সহজে মোবাইল ব্যবহার করে ফ্রিতে টাকা ইনকাম করতে পারবে। ফ্রি টাকা ইনকাম করার বিভিন্ন ধরনের মোবাইল অ্যাপস রয়েছে। যার ফলে আপনি মোবাইল দিয়ে টাকা আয় বিকাশে পেমেন্ট নিতে পারবেন। এই অ্যাপস গুলো মোবাইলে ইন্সটল করে কাজ করার মাধ্যমেই টাকা আয় করে বিকাশে পেমেন্ট নেওয়া যায়। তবে এখানে আপনাকে সময় দিতে হবে, অর্থাৎ যারা পড়ালেখা করার পাশাপাশি অতিরিক্ত সময় পান তারাই এখানে কাজ করতে পারেন। 
কারণ এখানে বেশি সময় দিয়ে কাজ করলে ভালো পরিমাণ টাকা আয় করা যায়। আপনি TaskTaka এপ্লিকেশনটি ডাউনলোড করে ইনকাম করা শুরু করে দিতে পারেন। এই অ্যাপ্লিকেশন টি মোবাইলে ইন্সটল করে ওপেন করবেন। তারপর আপনার একটি একাউন্ট খুলবেন। অ্যাকাউন্ট খোলা হয়ে গেলে আপনি এখানে আর্নিং করার বিভিন্ন অপশন পেয়ে যাবেন। বিশেষ করে এই অ্যাপটিতে আপনি ছোট ছোট গেম খেলে টাকা আয় করতে পারবেন, 
মোবাইল দিয়ে টাকা আয় বিকাশে পেমেন্ট
তাছাড়া পাশাপাশি ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম করার অপশন রয়েছে। অর্থাৎ আপনি এখানে ভিডিও দেখার মাধ্যমেও টাকা ইনকাম করতে পারবেন। এভাবে আপনি আরো বিভিন্ন ধরনের অ্যাপস এ কাজ করার মাধ্যমে মোবাইল দিয়ে টাকা আয় বিকাশ পেমেন্ট নিতে পারবেন। আপনারা শিক্ষার্থীরা অবসর সময়ে এই ফ্রী অ্যাপস গুলো থেকে কাজ করে টাকা আয় করতে পারেন।

২৪০ টাকা ফ্রী বিকাশ পেমেন্ট

বর্তমান সময়ে কোন ধরনের কাজ করা ছাড়া ফ্রিতে ইনকাম করা সহজ নয়। আপনি যদি কাজ করতে পারেন তাহলেই ফ্রিতে ইনকাম করতে পারবেন। আপনারা অনেকেই ২৪০ টাকা ফ্রি বিকাশ পেমেন্ট কিভাবে নেওয়া যায় এই সম্পর্কে প্রশ্ন করে থাকেন। এজন্য আমরা আজকের এই অংশে ২৪০ টাকা ফ্রি বিকাশ পেমেন্ট সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করব। আপনারা চাইলে সরাসরি ২৪০ টাকা ফ্রি বিকাশ পেমেন্ট নিতে পারেন কোনোরকম কাজ করা ছাড়াই। 
আপনি মোবাইল ফোনের গুগল প্লে স্টোর থেকে Wild cash অ্যাপ্লিকেশনটি ডাউনলোড করে নিবেন। এই অ্যাপ্লিকেশনটিতে কাজ করা ছাড়াই সরাসরি ২৪০ টাকা ফ্রি বিকাশ পেমেন্ট পাওয়া যায়। এই অ্যাপসটি ওপেন করার পরে একাউন্ট তৈরি করতে হবে। অ্যাপসটি মূলত মাইনিং এপ্স অর্থাৎ এখানে আপনি মাইনিং করার মাধ্যমে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। 
Wild cash
আপনাকে প্রতিদিন অ্যাপসটি ওপেন করে মাইনিং অপশনটিতে ক্লিক করতে হবে। এটি অটোমেটিক কয়েন মাইনিং হতে থাকবে। নির্দিষ্ট পরিমাণ কয়েন আপনার একাউন্টে জমা হয়ে গেলে আপনি সেটি ডলারের এক্সচেঞ্জ করে বিকাশে পেমেন্ট নিতে পারবেন। তাছাড়াও এই এপ্সটিতে কুইজ খেলার মাধ্যমে অথবা সার্ভে করে এক্সট্রা কয়েন আয় করা যায় এবং সেই কয়েন গুলো এক্সচেঞ্জ করে বিকাশে পেমেন্ট নিতে পারবেন। 

তাহলে বুঝতে পারছেন এটি একটি ফ্রি মাইনিং সাইট, যেখানে কোন কাজ করতে হয় না। শুধুমাত্র মাইনিং বাটনে ক্লিক করে কয়েন কালেক্ট করতে হয়। এভাবে আপনি ২৪০ টাকা ফ্রি বিকাশ পেমেন্ট পেতে পারেন। অ্যাপ্লিকেশনটি আপনি গুগল প্লে স্টোরে পেয়ে যাবেন।

দিনে ৫০০ টাকা ইনকাম apps

দিনে ৫০০ টাকা ইনকাম করতে চাইলে আপনারা সার্ভে অ্যাপ অথবা সার্ভে ওয়েবসাইটগুলোতে কাজ করতে পারেন। আপনারা এই ওয়েবসাইট গুলোতে বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেয়ার মাধ্যমে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। মূলত এটিকে সার্ভে বলা হয়ে থাকে, কোন কোম্পানি যখন পণ্য প্রচারণা করে অথবা ওয়েবসাইট রিভিউ করতে চাই তখন তারা সার্ভে দিয়ে থাকে।

এই সার্ভারগুলোতে উত্তর দেওয়ার মাধ্যমে টাকা ইনকাম করা যায়। বর্তমানে অনলাইনে বিভিন্ন ধরনের সার্ভে ওয়েবসাইট রয়েছে যেগুলোতে আপনারা কাজ করে প্রতিনিয়ত ৫০০ টাকা পর্যন্ত আয় করতে পারবেন। সার্ভে করার জন্য আপনারা Survimo ওয়েবসাইটটিতে ভিজিট করে দেখতে পারেন। তাছাড়াও বর্তমানে ফ্রি টাকা ইনকাম করার জন্য বিভিন্ন ধরনের মাইনিং অ্যাপ্লিকেশন রয়েছে, আপনারা সেই মাইনিং অ্যাপ্লিকেশন গুলোতে ফ্রি কাজ করে টাকা আয় করতে পারবেন। 
এই মাইনিং অ্যাপস গুলোতে তেমন কাজ করতে হয় না শুধুমাত্র কয়েন মাইনিং করতে হয়। মাইনিং অ্যাপস সম্পর্কে জানার জন্য youtube এ সার্চ করে দেখতে পারেন। তবে মাইনিং অ্যাপ গুলো থেকে টাকা ইনকাম করতে অনেক সময় লাগে। তাই আপনাকে ধৈর্য সহকারে সকল ধরনের মাইনিং অ্যাপ গুলোতে কাজ করে যেতে হবে, তাহলে আপনি নির্দিষ্ট সময় পর মাইনিং অ্যাপ থেকে অনেক টাকা পাবেন। নিচে ফ্রি টাকা ইনকাম করার কিছু অ্যাপস এর নাম তুলে ধরা হলোঃ
  • Pocket Earn app
  • Reward Pro app
  • QuickTok
  • TakaWork
  • WolfEarn
উপরে দেখানো অ্যাপস গুলো থেকে আপনারা প্রতিদিন ৫০০ টাকা পর্যন্ত আয় করতে পারবেন। তবে ৫০০ টাকা আয় করতে হলে আপনাকে এই অ্যাপসগুলোতে অনেক ধরনের কাজ করতে হবে এবং বেশি সময় ধরে কাজ করতে হবে। যাদের হাতে সময় রয়েছে তারা এই অ্যাপসগুলোতে কাজ করতে পারেন। এভাবে আপনি বাংলাদেশী অ্যাপ প্রতিদিন ১০০০ টাকা ইনকাম পেমেন্ট বিকাশে নিতে পারবেন। 

প্রতিদিন ৩০০ ৪০০ টাকা ইনকাম করুন বিকাশে পেমেন্ট

আপনারা প্রতিদিন ৩০০ থেকে ৪০০ টাকা ইনকাম করতে পারেন এবং সেটি বিকাশে পেমেন্ট নিতে পারবেন। এর জন্য আপনি অনলাইন ফুড স্টোর খুলতে পারেন, অর্থাৎ আপনি অনলাইনে খাবার ডেলিভারি দেওয়ার মাধ্যমে প্রতিদিন ৩০০ থেকে ৪০০ টাকা ইনকাম করতে পারবেন। মূলত আপনি অনলাইনে খাদ্যের ব্যবসা করতে পারেন, বিভিন্ন ধরনের সুস্বাদু খাবার বানিয়ে সেটি অনলাইনে ডেলিভারি দিতে পারেন। 

এর পাশাপাশি আপনি বাজারে ছোট একটি খাবারের দোকান দিয়ে অনলাইনে খাদ্য অর্ডার নেওয়ার কাজ করতে পারেন। এভাবে প্রতিদিন আপনি অনলাইনের মাধ্যমেই 300 থেকে 400 টাকা ইনকাম করতে পারবেন এবং সেটি বিকাশে নিতে পারবেন। তাছাড়া আপনার অনলাইন এর ব্যবসার এড দেখানোর মাধ্যমে প্রতিদিন টাকা আয় করতে পারবেন। আপনি টাকা ইনভেস্ট করে প্রতিদিন ৩০০ থেকে ৪০০ টাকা আয় করতে পারবেন, আপনি যদি ট্রেডিং করতে পারেন তাহলে ট্রেডিং করার মাধ্যমে প্রতিদিন ৪০০ থেকে ১০০০ টাকা পর্যন্ত আয় করতে পারবেন। 
এর পাশাপাশি ট্রেডিং প্লাটফর্ম গুলোতে টাকা জমা রাখার মাধ্যমেও আয় করা সম্ভব। বর্তমানে বাইন্যান্স এক্সচেঞ্জার প্লাটফর্মে ডলার জমা রাখার মাধ্যমে নির্দিষ্ট পরিমাণ ফ্রি টাকা পাওয়া যায়, তাছাড়া এখানে অনলাইন ট্রেডিং করার মাধ্যমে প্রচুর টাকা আয় করা সম্ভব। তবে মনে রাখতে হবে ট্রেডিং করার জন্য টাকা ইনভেস্ট করতে হয়, আর ট্রেডিং বিষয়ে ভালোভাবে জানতে হয়। যারা ট্রেডিং করতে পারেন না, তারা অবশ্যই ট্রেডিং করা থেকে বিরত থাকবেন।

আর্টিকেল রাইটিং করে ফ্রি টাকা ইনকাম বিকাশে পেমেন্ট

বর্তমান সময়ে অনলাইন থেকে আয় করার সবচেয়ে সহজ মাধ্যম হলো আর্টিকেল রাইটিং। আর্টিকেল রাইটিং করার জন্য তেমন কোন যোগ্যতা বা দক্ষতার প্রয়োজন হয় না। শুধুমাত্র আর্টিকেল রাইটিং এর জ্ঞান থাকলেই আপনি আর্টিকেল রাইটিং করতে পারবেন। তাছাড়াও আপনারা ফ্রিতেই আর্টিকেল রাইটিং শিখে নিতে পারবেন। বর্তমানে ইউটিউবে ফ্রিতে আর্টিকেল রাইটিং কোর্স চালু রয়েছে, সেগুলো আপনি দেখে আর্টিকেল রাইটিং শিখে নিতে পারবেন। 

এই আর্টিকেল রাইটিং করে আপনি ফ্রি টাকা ইনকাম বিকাশে পেমেন্ট নিতে পারবেন। আর্টিকেল রাইটিং করার জন্য বিভিন্ন ধরনের ওয়েবসাইট রয়েছে, অর্থাৎ সেই ওয়েবসাইট গুলোতে আপনি আর্টিকেল রাইটিং করে বিকাশে টাকা নিতে পারবেন। আর্টিকেল রাইটিং হলো মূলত যেকোন বিষয়ে কনটেন্ট বা পোস্ট লেখা। আমরা যেমন ফেসবুকে বিভিন্ন ধরনের পোস্ট লিখে থাকি, ঠিক একই ভাবে ওয়েবসাইটে পোস্ট লিখতে হয়। 
আর এই পোস্ট লেখাকে আর্টিকেল রাইটিং বলা হয়। তবে এই আর্টিকেল রাইটিং এ পোস্টগুলো বড় আকারের হয়ে থাকে। তাই আপনারা অযথা সময় নষ্ট না করে মোবাইল ফোন অথবা কম্পিউটার ব্যবহার করে আর্টিকেল রাইটিং করে দৈনিক ৫০০ টাকার উপরে আয় করতে পারবেন। 

আর্টিকেল রাইটিং জমা দিয়ে ইনকাম করার জন্য ordinary it ,hotovaga ওয়েবসাইটগুলোতে যোগাযোগ করতে পারেন। বর্তমানে আর্টিকেল রাইটিং করে ইনকাম করার সবচেয়ে জনপ্রিয় ও ট্রাস্টেড ওয়েবসাইট হল ordinary it। আপনারা এই ওয়েবসাইটে আর্টিকেল রাইটিং করে প্রতি মাসে অন্তত ১০ থেকে ১৫ হাজার টাকা আয় করতে পারবেন।

ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম পেমেন্ট বিকাশে

আপনারা চাইলে বিভিন্ন অ্যাপস গুলোতে ভিডিও দেখার মাধ্যমে টাকা ইনকাম করে বিকাশে নিতে পারবেন। বর্তমানে বাংলাদেশে ভিডিও দেখে ইনকাম করার অনেক ধরনের অ্যাপস বা ওয়েবসাইট রয়েছে, যেগুলোতে ভিডিও দেখার মাধ্যমে অর্থ উপার্জন করা যায়। আমরা ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম করার অ্যাপস গুলো সম্পর্কে অলরেডি পোস্ট লিখে রেখেছি। 
আপনারা ওয়েবসাইটের অনলাইন ইনকাম ক্যাটাগরি থেকে ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম করার উপায় পোস্টটি ওপেন করে পড়ে নেবেন। সেখানে আমরা ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম করার বিভিন্ন উপায় ও নিয়ম গুলো তুলে ধরেছি, আপনারা ভালোভাবে পোস্টটি পড়লে ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম করা অ্যাপস ও উপায় সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জেনে যাবেন। তাই আমরা এখন আর এই পোস্টটিতে ভিডিও দেখে টাকা ইনকাম করার উপায় সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করছি না।

FAQs | ফ্রি টাকা ইনকাম apps

প্রশ্নঃকিভাবে ঘরে বসে টাকা আয় করা যায়? 
উত্তরঃআপনি ঘরে বসে অনলাইনের মাধ্যমে বিভিন্ন উপায়ে টাকা আয় করতে পারেন। নিম্নে উপায়গুলো তুলে ধরা হলোঃ
  • ব্লগিং করে আয়
  • অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে আয়
  • ইউটিউব থেকে আয়
  • সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং
  • মার্কেটপ্লেসে ফ্রিল্যান্সিং করে আয়
  • আর্টিকেল লিখে আয়
  • ডিজিটাল মার্কেটিং করে আয়
  • ফ্রী ইনকাম অ্যাপস থেকে আয়
প্রশ্নঃ গেম খেলে কিভাবে টাকা ইনকাম করা যায়?
উত্তরঃ আপনারা লুডু গেম খেলে অথবা বিভিন্ন ধরনের অ্যাকশন গেম যেমনঃ ফ্রী ফায়ার , পাবজি ও রেসিং গেম খেলে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। বর্তমানে লুডু গেম খেলে টাকা আয় করা যাচ্ছে। তাছাড়া আপনারা ফ্রি ফায়ার ও পাবজি টুর্নামেন্ট খেলার মাধ্যমেও নির্দিষ্ট অ্যামাউন্টের টাকা আয় করতে পারবেন।

টাকা আয় করার উপায় আছে কি?
টাকা আয় করার জন্য অনলাইন প্লাটফর্মে কাজ করতে পারেন। যা আমরা পুরো পোস্টটিতে বিস্তারিত আলোচনা করেছি।

অ্যাপস কি সত্যিই গেম খেলে টাকা দেয়?
হ্যাঁ , অনেক ধরনের অ্যাপস রয়েছে যেগুলোতে গেম খেলার মাধ্যমে টাকা পাওয়া যায়। যেমন আপনি লুডু গেম খেলে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। তাছাড়াও গেম খেলে টাকা আয় করার বিভিন্ন অ্যাপ্স এর নাম আমরা পোস্টটিতে তুলে ধরেছি।

ফ্রি মানি গেমস কি রিয়েল?
 হ্যাঁ, ফ্রি মানি গেমস রিয়েল, বিভিন্ন ধরনের অ্যাপ রয়েছে যেখানে ফ্রি মানি গেম খেলে রিয়েল টাকা ইনকাম করা যায় এবং সেটি বিকাশে পেমেন্ট নেওয়া যায়।

লেখকের শেষ কথা

প্রিয় পাঠক আশা করছি আপনারা আজকের এই সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়ে প্রতিদিন ফ্রি টাকা ইনকাম বিকাশে পেমেন্ট নেওয়ার উপায় গুলো বিস্তারিত জেনে গেছেন। তাছাড়া ও কিভাবে আপনি ২৪০ টাকা ফ্রি বিকাশ পেমেন্ট নিবেন সেই সম্পর্কে তুলে ধরা হয়েছে। মূলত পোস্টটিতে অনলাইন ইনকাম ও ফ্রি টাকা ইনকাম করার অ্যাপস গুলো সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। 

যার ফলে আপনারা ফ্রি টাকা ইনকাম করার উপায় সম্পর্কে জেনে মোবাইলে ফ্রি ইনকাম করে বিকাশে পেমেন্ট নিতে পারবেন। ফ্রিতে টাকা ইনকাম করার জন্য আপনাকে প্রচুর পরিশ্রম ও ধৈর্য সহকারে কাজ করে যেতে হবে। তাহলে আপনি এই ফ্রি ইনকাম সেক্টর গুলো থেকে টাকা ইনকাম করতে সক্ষম হবেন।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

অর্ডিনারি বিডির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url