বাইনারি ট্রেডিং কি হালাল ও বাইনারি ট্রেডিং কি বাংলাদেশে বৈধ কিনা জানুন

প্রিয় বন্ধুরা আপনারা নিশ্চয়ই বাইনারি ট্রেনিং কি হালাল এই সম্পর্কে জানার জন্য আজকের এই পোস্টটিতে এসেছেন। তবে আপনারা চিন্তিত হবেন না, আজকের এই আর্টিকেলটিতে বাইনারি ট্রেনিং কি হালাল ও ফরেক্স ট্রেডিং কি হালাল সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করার চেষ্টা করব।
বাইনারি ট্রেডিং কি হালাল
আর্টিকেল সূচিপত্রঃআজকের পোস্টটিতে মূলত বাইনারি ট্রেনিং কি হালাল ও ট্রেডিং কি এই সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে। যারা ট্রেডিং সম্পর্কে জানেন না তারা অবশ্যই ভালো করে পোস্ট করবেন। কারণ পোস্টে ট্রেডিং বিষয়টি বিস্তারিত তুলে ধরা হবে।

ভূমিকা । ট্রেডিং কি

বর্তমানে সকলে যায় অনলাইন থেকে বিভিন্নভাবে ইনকাম করতে। আপনারাও ট্রেডিং করার মাধ্যমে অনলাইনে ঘরে বসে ইনকাম করতে পারবেন। তবে তার আগে আপনাকে অবশ্যই ট্রেডিং কি এই সম্পর্কে জানতে হবে। তাছাড়াও জানতে হবে ট্রেডিং হালাল কি। এই সকল বিষয় নিয়ে আমরা আজকের পোষ্টে আলোচনা করব। অনলাইনে সাধারণত যেকোন কিছুর বিনিময় করাকে ট্রেডিং বলা হয়ে থাকে। 
আর যখন একটি দেশের মুদ্রা অন্য দেশে মুদ্রার সাথে বিনিময় করা হয় তখন তাকে এক্সচেঞ্জ বলা হয়ে থাকে। আমরা এখানে যেহেতু ভার্চুয়াল কয়েন বিনিময় করে থাকি, তাই একে আমরা ক্রিপ্টো ট্রেডিং বলে থাকি। ট্রেডিং সাধারণত বিভিন্ন ধরনের হয়ে থাকে। ট্রেডিং এর উপর নির্ভর করে বলা যায় এটি আপনার জন্য হালাল কি না হারাম। বাইনারি ট্রেডিং কি হালাল এই সম্পর্কে জানতে পোষ্টটি সম্পূর্ণ পড়ুন।

বাইনারি ট্রেডিং কি হালাল

বর্তমানে অনলাইনে ট্রেডিং করে খুব সহজে টাকা ইনকাম করা যায়। বিষয় ট্রেডিং এর জনপ্রিয়তা খুবই বৃদ্ধি পেয়েছে। টাকা ইনকাম করার জন্য কম বেশি সকলেই ট্রেডিং করতে চায়। ট্রেডিং এ একদিকে টাকা ইনকাম করা সহজ আর অপরদিকে টাকা হারানো খুব সহজ। অর্থাৎ আপনি ট্রেডিং করে ইনকাম করতে পারবেন এবং আবার টাকা লস করতে পারবেন। 
যারা ট্রেডিং করেন তাদের অবশ্যই হারাম ও হালাল এর বিষয়টি মাথায় রেখে ট্রেডিং করতে হবে। বাইনারি ট্রেডিং হালাল কিনা সেটি নির্ভর করে মূলত আপনার উপর। আপনি যেভাবে ট্রেডিং করবেন তার ওপর নির্ভর করে বলা যাবে সেটি হালাল হবে কিনা। আপনারা যদি বাইনারি ট্রেডিং প্লাটফর্মে এসে কোনরকম ট্রেডিং চাট এনালাইসিস করা ছাড়াই ট্রেডিং করা শুরু করেন তাহলে এটি আপনার জন্য সম্পূর্ণ হারাম। 
ট্রেডিং করার জন্য আগে ট্রেডিং বিষয়টি সম্পর্কে ভালোভাবে জানতে হয় এবং মার্কেটে এনালাইসিস ও ট্রেডিং স্ট্রাটেজি বুঝতে হয়। মূলত আপনাকে প্রথমে ট্রেডিং শিখতে হবে। তবে মনে রাখবেন ট্রেডিং এ কখনোই অতিরিক্ত লাভ করা যাবে না, যেখানে লাভ ও লস দুটোই হয় সেটি করা হারাম। আপনি যদি বাইনারি ট্রেডিং করে টাকা হারিয়ে ফেলেন তাহলে সেটি আপনার জন্য হারাম হবে। সাধারণত কোন খেলায় না জেনে বুঝে বাজি ধরাকে জুয়া বলা হয়ে থাকে। 
আপনি যদি ট্রেডিং না জেনে বুঝে টাকা ইনভেস্ট করে ট্রেড করেন তাহলে এটি আপনার জন্য জুয়া হয়ে দাঁড়াবে। যা ইসলামী পরিভাষায় সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ এবং হারাম। আপনারা কখনোই জুয়া খেলার চেষ্টা করবেন না। তবে আপনারা যদি জেনে বুঝে ট্রেডিং এর নিয়ম অনুযায়ী বাইনারি ট্রেডিং করে থাকেন তাহলে সেটি আপনার জন্য হালাল হবে, কিন্তু এখানে একটা কথা মাথায় রাখতে হবে ট্রেডিং করে অতিরিক্ত টাকা লাভ করা যাবে না। 
আপনি যত টাকা ইনভেস্ট করছেন তার বিনিময়ে যত টাকা লাভ করা যায় ততটুকু লাভ করতে পারবেন। ট্রেডিং করে যদি অতিরিক্ত মুনাফা লাভ করে থাকেন তাহলে সেটা আপনার জন্য হারাম হবে। আরেকটা বিষয় হলো আপনি যদি ভাগ্য নির্ভর করে ট্রেডিং করেন তাহলে সেটি আপনার জন্য হারাম হবে। মূলত আপনি ট্রেডিং নিয়ম শিখে এবং ট্রেডিং এর নিয়ম অনুযায়ী ডেট করতে পারবেন। 
আপনারা যদি কোন ধরনের মার্কেট এনালাইসিস না করে ও ট্রেডিং স্ট্রাটেজি ফলো না করে বাইনারি ট্রেডিং করেন তাহলে সেটি আপনার জন্য জুয়া হবে, আর জুয়া সম্পূর্ণ হারাম। আপনারা যদি বাইনারি ট্রেডিং না পারেন তাহলে করবেন না, প্রথমত আপনি ট্রেডিং সম্পর্কে জানবেন এবং শিখবেন তারপর ট্রেডিং করার চেষ্টা করবেন। আরেকটা কথা বলা যায় যে ট্রেডিংয়ে লস হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে সেই ট্রেডিং করা সম্পন্ন হারাম। 
এই দিক দিয়ে দেখতে গেলে বাইনারি ট্রেডিংয়ে লস হওয়ার সম্ভাবনা থাকে, সে ক্ষেত্রে বাইনারি ট্রেডিং জুয়া বলা যায়। তবে আপনি যদি কোন ধরনের লস ছাড়াই বাইনারিতে ট্রেডিং করতে পারেন তাহলে সেটি জুয়া না হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। এই ট্রেডিং বিষয় নিয়ে ইসলামে অনেক মতবিরোধ রয়েছে। আপনারা যারা ট্রেডিং করতে চান তারা অবশ্যই ট্রেডিং বিষয়ে জ্ঞান অর্জন করে করবেন।

বাইনারি ট্রেডিং কি বাংলাদেশে বৈধ

তাহলে আশা করছি আপনারা আগের অংশটিতে বাইনারি ট্রেডিং কি হালাল এই সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানতে পেরেছেন। মূলত হালাল ও হারাম নির্ভর করে আপনার উপর। আপনি যেই নিয়মে তিনি করবেন সেই নিয়ম সঠিক হলে বাইনারি ট্রেডিং হারাম হবে না। ট্রেডিং করার জন্য অনেক পরিশ্রম ও মার্কেট এনালাইসিস করতে হয়। আপনি যদি ট্রেডিং সম্পর্কে না জেনে বুঝে ট্রেড করেন তাহলে সেটি জুয়া হয়ে দাঁড়ায়, আর যা ইসলামে হারাম। 
বাইনারি ট্রেডিং নিয়ে বাংলাদেশে কোন আইন অথবা বৈধতা তেমন কোন কিছু তথ্য পাওয়া যায়নি। আপনারা যেকোনো ধরনের ট্রেডিং করতে পারবেন। তবে বড় ধরনের বিটকয়েন ক্রিপ্টো ট্রেডিং করতে গেলে বিভিন্ন ঝামেলায় পড়তে পারেন। বাংলাদেশের ট্রেডিং নিয়ে নির্দিষ্ট আইন নেই সে ক্ষেত্রে আপনারা ট্রেডিং করতে পারেন। বিশ্বের প্রায় সকল দেশেই ট্রেডিংকে বৈধতা ঘোষণা করা হয়েছে।

বাইনারি ট্রেডিং কোর্স

আপনারা অনেকেই বাইনারি ট্রেডিং কোর্স করতে চেয়ে থাকেন। এজন্য আমরা এখন বাইনারি ট্রেডিং কোর্স সম্পর্কে কিছু আলোচনা করব। বর্তমানে প্রায় সকলেই ট্রেডিং করে প্রচুর টাকা ইনকাম করছে। তবে সে ক্ষেত্রে আগে ট্রেডিং সম্পর্কে জানতে হয়। আর সেই ট্রেডিং সম্পর্কে জানার জন্য অনেকে ট্রেডিং কোর্স খুঁজে থাকে। আপনারা ইউটিউবে অথবা বিভিন্ন প্লাটফর্মে বাইনারি ট্রেডিং কোর্স পেয়ে যাবেন। 
তাছাড়া ইউটিউবে ফ্রিতেই অনেকেই বাইনারি ট্রেডিং কোর্স করিয়ে থাকে, আপনারা তাদের ভিডিও গুলো দেখে শিখে নিতে পারেন। এছাড়াও বিভিন্ন অনলাইন প্লাটফর্ম ও বাইনারি টেডার্স ট্রেডিং কোর্স করিয়ে থাকে। তারা কোর্স ফি নিয়ে অনলাইনে কোর্স করিয়ে থাকে। আপনার তাদের কাছ থেকে বাইনারি ট্রেডিং কোর্স করে শিখে নিতে পারেন।

 ট্রেডিং কি হালাল নাকি হারাম

ট্রেডিং সাধারণত অনেক ধরনের হয়ে থাকে, আপনারা কিন্তু ইতিমধ্যেই বাইনারি ট্রেডিং কি হালাল এই সম্পর্কে জেনে এসেছেন। তবে বাইনারি ট্রেডিং ছাড়াও অনেক ধরনের ট্রেডিং রয়েছে। যেমনঃ ফরেক্স ট্রেডিং এবং ক্রিপ্টো ট্রেডিং। ফরেক্স ট্রেডিং আর বাইনারি ট্রেডিং মূলত প্রায় একই ধরনের। তাই সেক্ষেত্রে ফরেক্স ট্রেডিং হালাল নাকি হারাম সেটি সঠিকভাবে বলা সম্ভব হচ্ছে না। 

তবে আপনারা বাইনারি ট্রেডিং এর সাথে মিলিয়ে দেখতে পারেন। আর আরেক প্রকার ট্রেডিং রয়েছে সেটি হল ক্রিপ্টো কারেন্সি ট্রেডিং, এখানে মূলত ভার্চুয়াল বা ডিজিটাল কয়েনগুলো নিয়ে ট্রেডিং করা হয়। কয়েনের বিনিময় ও আদান প্রদান করার মাধ্যমে ট্রেডিং করাকেই ক্রিপ্টো ট্রেডিং বলা হয়। ট্রেডিং কি হালাল নাকি হারাম এটি নির্ভর করে সম্পূর্ণ আপনার ওপর। 

আপনি যদি ট্রেডিং করে অতিরিক্ত লাভ করেন এবং অতিরিক্ত লস করেন তাহলে সেক্ষেত্রে ট্রেডিং আপনার জন্য হারাম হবে। ট্রেডিং এর সাধারণত সামান্য পরিমাণ লাভ করে করা হলে হালাল হিসেবে গণ্য করা হয়। আর যে ট্রেডিংয়ে টাকা হারানোর ভয় থাকে না সেই ট্রেডিং করা যেতে পারে। তবে আপনারা ট্রেডিং কি হালাল নাকি হারাম এই বিষয়টি সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে ইউটিউবে ইসলামিক ভিডিও দেখে নিবেন।

ক্রিপ্টো ট্রেডিং হালাল নাকি হারাম

সাধারণত ডিজিটাল কয়েন এর মাধ্যমে ট্রেডিং করাকেই ক্রিপ্টো ট্রেডিং বলা হয়। ক্রিপ্টো ট্রেডিং সম্পূর্ণভাবে হারাম নয়, আবার সম্পূর্ণভাবে হালাল নয়। মূলত আপনি ক্রিপ্টো ট্রেডিং করে লাভের পরিমাণ বজায় রাখলে এবং লস না করলে সেটি আপনার জন্য হালাল হবে। ট্রেডিং এ অনেক ইসলামিক স্কলার বিভিন্ন মতবাদ দিয়ে থাকে। বেশিরভাগ বলে থাকে ট্রেডিং করে অন্য ধরনের লস ছাড়াই যদি লাভ করা যায় তাহলে সেই ট্রেডিং করা যাবে।ক্রিপ্টো ট্রেডিং সাধারণত দুই ধরনের হয়ে থাকে।
  • Spot Trading
  • Future Trading
সাধারণত এই দুই ধরনের ট্রেডিং করা হয়ে থাকে। এখানে Spot ট্রেডিংয়ে সচরাচর কম লাভ করা হয়। এখানে টাকা লস যাওয়ার সমস্যা থাকে না। এই টেডিং করা হালাল। এখানে যেহেতু টাকা হারানোর সমস্যা থাকে না এবং আপনি এই ট্রেডিং করে খুব কম পরিমাণে লাভ করতে পারবেন সেক্ষেত্রে অনেকেই স্পট ট্রেডিংকে হালাল বলে থাকে। তবে ক্রিপ্টো কারেন্সি প্ল্যাটফর্মে Future Trading নামে অপশন রয়েছে। এই ট্রেডিং করা সম্পন্ন হারাম। 

কারণ এখানে ট্রেড করলে বেশি লাভ পাওয়া যায় এবং বেশি টাকা লস হওয়ার সম্ভাবনা থাকে, টাকা লস হলেও সেটি অতিরিক্ত পরিমাণ হয়ে থাকে। যা জুয়ার সমতুল্য মনে করা হয়। জুয়াতে যেমন টাকা লস হয় ঠিক সেভাবেই Future ট্রেডিং এ টাকা লস হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তাই আপনারা Future ট্রেড করবেন না , স্পর্ট ট্রেডিং করতে পারেন।আর স্পট ট্রেডিং করলে অবশ্যই জেনে বুঝে এবং ট্রেডিং শিখে করবেন।

Quotex ট্রেডিং কি হালাল

আপনারা কিন্তু অনেকেই Quotex ট্রেডিং কি হালাল এই সম্পর্কে জানতে চেয়ে থাকেন। মূলত আগের মতই বাইনারি ট্রেডিং কি হালাল এই বিষয়টি ভালোভাবে জানলে আপনি বুঝতে পারবেন। Quotex ট্রেডিং আর বাইনারি ট্রেডিং প্রায় একই ধরনের হয়ে থাকে। তাই আপনারা বাইনারি ট্রেডিং হালাল কিনা সেই বিষয়টি ভালো করে পড়ে নিবেন। 

মূল কথায় বলতে গেলে যেই ট্রেডিংয়ে লস হওয়ার সম্ভাবনা থাকে সেটি করা জায়েজ নয়।Quotex ট্রেডিংয়ে অতিরিক্ত লাভ ও লস হওয়ার সম্ভাবনা থাকে তাই সে ক্ষেত্রে এটি জায়েজ নয়। তবে অনেকের মতে Quotex ট্রেডিং হালাল, যদি আপনি এখানে ট্রেডিং শিখে ঠিকমতো কাজ করে তাহলে সেটি হালাল হিসেবে ধরা যাবে, তবে এখানে আপনাকে খুব কম পরিমাণে লাভ করতে হবে।

ট্রেডিং হালাল হবে তখন , যখন পর্যন্ত আপনি ট্রেডিং করে উপার্জন করার সময় সুদ গ্রহণ করবেন না, আপনাদের মত অনেকে আছে ট্রেডিং করে দুটো ইনকাম করার জন্য ট্রেডিং এ সুদ গ্রহণ করে থাকে, যার ফলে তার ট্রেডিং থেকে ইনকাম টাকা সম্পূর্নই হারাম হয়ে দাঁড়ায়। মূল কথায় আপনারা যদি ট্রেডিং এর নিয়ম কানুন অনুযায়ী ইনকাম করেন এবং কোন ধরনের সুদ গ্রহণ না করে ট্রেডিং করে থাকেন তাহলে সেটি আপনার জন্য হালাল হবে। 

তবে প্রকৃতপক্ষে ট্রেডিং সম্পূর্ণভাবে হালাল নয় আবার হারামও নয়। নির্দিষ্ট পদ্ধতিতে সঠিক উপায়ে ট্রেডিং করলে সেটি হালাল হয়। আশা করছি বুঝতে পেরেছেন Quotex ট্রেডিং যদি আপনি সুদ গ্রহণ করা ছাড়া করতে পারেন তাহলে সেটি আপনার জন্য হালাল হতে পারে।

ফরেক্স ট্রেডিং শিখুন

আপনারা খুব সহজেই অনলাইনে প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে ফরেক্স ট্রেডিং শিখতে পারবেন। বর্তমানে অনেকেই অনলাইনে নির্দিষ্ট ফি নেওয়ার মাধ্যমে অনলাইনে ফরেক্স ট্রেডিং কোর্স করিয়ে থাকে, আপনারা সেখানে কোর্স ফি দিয়ে ট্রেডিং শিখতে পারেন। ফরেক্স ট্রেডিং শিখতে হলে অনেকগুলো বিষয় জানতে হয়। মূলত ট্রেডিং এর ডিজিটাল মুদ্রা গুলো সম্পর্কে জানতে হয়, তাছাড়া কিভাবে ট্রেডিং করতে হয়, 

কিভাবে মার্কেট এনালাইসিস করতে হয় সেই সম্পর্কে জানতে হয়। এগুলো জানতে হলে আপনি ইউটিউবে ফ্রিতেই ক্লাস করে দেখতে পারেন। বর্তমানে ইউটিউবে অনেকেই ফরেক্স ট্রেডিং বিষয় নিয়ে ভিডিও বানিয়ে থাকে। সেগুলো দেখে আপনারা শিখে নিতে পারেন। আর ফরেক্স ট্রেডিং করার জন্য আপনাকে অবশ্যই মার্কেট স্ট্রাটেজি ভালোভাবে জানতে হবে। বিভিন্ন বিষয় মাথায় রেখে এই ধরনের ট্রেড গুলো করতে হয়।

ট্রেডিং কি জুয়া

আপনারা জানেন ট্রেডিং থেকে খুব কম সময়ে দ্রুত অনেক বেশি টাকা ইনকাম করা যায়, যার কারণে অনেকেই ট্রেডিংকে জুয়া বলে থাকে। ট্রেডিং এক প্রকার ব্যবসা, আপনি যদি কোন ব্যবসায়ী না জেনে বুঝে ইনভেস্ট করে থাকেন সেটি তাহলে জুয়া হয়ে দাঁড়ায়। জুয়া বলতে যেখানে মূলত অতিরিক্ত টাকা লাভ হওয়ার সম্ভাবনা থাকে এবং অনেক বেশি টাকা লস হওয়ার সম্ভাবনাও থাকে। 

আর ট্রেডিং এর ক্ষেত্রেও বেশি পরিমাণ লস হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। তবে আপনি যদি লস রিকভার করে ট্রেডিং নিয়ম অনুযায়ী ইনকাম করতে পারেন তাহলে সেটি জুয়া হবে না। ট্রেডিং করার জন্য অনেক নিয়ম কানুন রয়েছে সেগুলো জেনে যদি আপনি ট্রেডিং করেন, তাহলে ট্রেডিং কখনোই জুয়া হতে পারে না। তবে একটা কথা মাথায় রাখতে হবে ট্রেডিং থেকে যদি আপনি অতিরিক্ত বেশি টাকা লাভ করেন তাহলে সেটি জুয়া হতে পারে।

ফরেক্স ট্রেডিং কি হালাল

ফরেক্স ট্রেডিং সম্পূর্ণভাবে হালাল নয় আবার সম্পূর্ণভাবে হারামও বলতে পারবেন না, আপনি ফরেক্স ট্রেডিংয়ে মার্কেটে এনালাইসিস করে এবং অতিরিক্ত মুনাফা না করে, সুদ না গ্রহণ করে ট্রেডিং করলে সেটি হালাল হিসেবে গণ্য হবে। তবে আপনি যদি ফরেক্স ট্রেডিং করে একদিনেই অনেক টাকা ইনকাম করে ফেলেন এবং একদিনে অনেক টাকা লস করে ফেলেন যার কারণে এটি হারাম। আর যদি আপনি ফরেক্স ট্রেডিং এর রুল অনুযায়ী ট্রেডিং করেন তাহলে সেটি আপনার জন্য হারাম নাও হতে পারে, তবে সেক্ষেত্রে বিস্তারিত জানার জন্য একজন ভালো ইসলামিক স্কলারের সাথে যোগাযোগ করবেন।

লেখকের শেষ কথা

তাহলে প্রিয় বন্ধুরা আশা করছি আপনারা আজকের এই পোস্টে বাইনারি ট্রেডিং কি হালাল সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানতে পেরেছেন। মূলত বাইনারি ট্রেডিং সম্পূর্ণভাবে হালাল নয়, সেক্ষেত্রে আপনি আমরা বলবো আপনারা হালাল ইনকাম করতে চাইলে ট্রেডিং করার দরকার নেই। ফ্রিল্যান্সিং করতে পারেন। অনেক সময় ট্রেডিং করে ইনকাম সম্পন্নই হারাম হয়ে দাঁড়ায়, যা আপনার জন্য ক্ষতিকর। 

তাই আমাদের মতে আপনি ট্রেডিং করতে চাইলে সুদ গ্রহণ ছাড়া ট্রেডিং করতে হবে। আর যেটি একমাত্র ক্রিপ্টো কারেন্সি ট্রেডিং এ সম্ভব। আপনারা ক্রিপ্টো কারেন্সি ট্রেডিংয়ের spot ট্রেডিং করতে পারেন। এখানে কম লাভে ট্রেডিং করা যায়। আর আপনি যদি হারাম ও হালাল বিবেচনা না করেই ট্রেডিং করতে চান তাহলে সেক্ষেত্রে বেশি টাকা ইনকাম করার জন্য বাইনারি ট্রেডিং , ফরেক্স ট্রেডিং আর অন্যান্য ট্রেডিং গুলো করতে পারেন।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

অর্ডিনারি বিডির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url